প্রচ্ছদ » আমাদের সাহিত্য » কবিতা » এক মূমুর্ষূ রাত

এক মূমুর্ষূ রাত

ছিল এক নন্দন রূপে
সাজানো ঘড়ি,
নিয়েছিলাম মুই;
দিয়েছিলাম বাবার
কড়ি।

করেছিলাম স্টাইল;
নিয়েছিলাম মূঢ়,
দেখে তা; নিয়েছে
কেড়ে এক মিত্র জোড়।

দেখাইয়াছিলাম ঘড়িটি
তারে,
জানি আমি মুগ্ধ
হয়েছিল সে বারে
বারে।

মিত্র জোড় করেছিল
সংলাপ,
ধরেছিলাম মুই দীর্ঘ
বিলাপ।

তখনি বেজেছে মায়ের
মনে ঘণ্টাস্বর,
হয়তো না’কি শুনেছে
সে মোর কণ্ঠস্বর।

নেওয়ার জন্য
করেছিল মোরে বন্দি,
তখনি আমি
চেয়েছিলাম করতে
শত সন্ধি।

পারি না আমি; বলে
মোরে শত্রু তব,
জানি আমি: হবে তারা
একদা ঘুরে ভব।

করেছিল মোর ঘড়িটি
দাবি,
যখনি দিয়েছি; তখনি
বলেছে TnQ কবি।

যখনি নিয়েছে মোর
ঘড়িটি কাড়ি,
তখনি জমিয়েছে তারা
নরকে পাড়ি।

তখন আমি হয়েছি
ধন্য,
যখন দিয়েছি তাদের
ডাকাতি পণ্য।

এটাই ছিল হয়তো
তাদের পাওনা,
তাই করেছি তাদের
শোধ দেনা।

যখনি করেছি তাদের
শোধ দেনা,
তখনি হয়ছি মুই সময়
কানা।

করেছে মোরে সময়
অন্ধ,
হয়েছে আমার অন্তর
মন্দ।

এটাই দিবে তাদের
অভিশাপ,
বাধ্য হয়ে নরকে
তারাই দিবে ঝাঁপ।

>