প্রচ্ছদ » মুক্তমঞ্চ » আমার কথা » শিক্ষা শিশুর মৌলিক অধিকার, কথাটি কি শুধুই সাংবিধানিক??

শিক্ষা শিশুর মৌলিক অধিকার, কথাটি কি শুধুই সাংবিধানিক??

সংবিধানের ১০২ নং অনুচ্ছেদে শিশুদের মৌলিক অধিকার এর কথা বলা হয়েছে। কিন্তু মৌলিক অধিকারকে কেনো সংবিধানে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছিল? শুধুমাত্র আনুষ্ঠানিকতার জন্য? নাকি সত্যি তা বাস্তবায়নের লক্ষে প্রস্তাবটি পাশ হয়েছিল? যদি তাই হয়ে থাকে তবে তার সুফল আমরা দেখতে পাচ্ছি না কেনো? কেনো শিশু তার মৌলিক অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে? কেনো তারা নিষ্ঠুরতা ও পৈশাচিকতার শিকার হচ্ছে?
এই মৌলিক অধিকার গুলো তখনই বাস্তবায়ন হবে যখন শিশু পরিপূর্ণ শিক্ষা ও সুন্দর পরিবেশে বেড়ে উঠবে। কিন্তু এখনো দেখি পেটের দায়ে শিশু শিক্ষা জীবন ছেড়ে পেশাকে বেছে নিয়েছে। এবং শিশুশ্রম এ নিয়োজিত হচ্ছে। তার প্রমানও বিরল নয়। রাজন, রাকিব এদের প্রতি করা পৈশাচিক আচরনে বিক্ষুদ্ধ বাংলাদেশের রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও আম জনতা। শুধু এতটুকু তে সীমাবদ্ধ নয়। এই রকম আরো রাজন রাকিব আমাদের চক্ষুর অগোচরে নির্যাতিত হচ্ছে। ২০১২, ২০১৩, ২০১৪, ২০১৫ এর রিপোর্ট অনুযায়ী, এই চার বছরে মোট ৯৬৮জন শিশু নিষ্ঠুরতা ও পৈশাচিকতার শিকার হয়েছে। এভাবে চলতে থাকলে আমাদের দেশের ভবিষ্যত্‍ কি হবে? কে দিবে পরবর্তী প্রজন্মের নেতৃত্ব? জাতি তখন নেতৃত্বহীনতায় ভুগবে।
সংবিধান রচনা করেই দায়বদ্ধতা শেষ হয়ে যায় না। সংবিধান অনুযায়ী দেশ পরিচালনা করতে হয়।
এই শিশু গুলোকে অবহেলা করে এই দেশ কতটুকু আগাতে পারবে? আজকের শিশুরাই তো আগামী দিনের রাষ্ট্র পরিচালনা করবে। কিন্তু তাদের শৈশব যদি অশিক্ষা, অনিয়ম, নিষ্ঠুরতা ও বর্বরতার মধ্যে কাটে তবে তা তাদের চিন্তা জগতে ও মানসিক জগতে ব্যাপক ক্ষতি সাধন করবে। যা আগামী যুগের জন্য, পরবর্তী শতাব্দীর জন্য হুমকীর স্বরূপ!

>
বাংলা ইনিশিয়েটরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।