প্রচ্ছদ » বিনোদন » সবাই দায়ী করলেও মুখ খুলছেন না সানি লিওন

সবাই দায়ী করলেও মুখ খুলছেন না সানি লিওন

বিনোদন ডেস্কঃ এই মুহূর্তে ভারতে প্রায় সব সামাজিক সমস্যার জন্য দায়ী কে? অন্তত নীতি পুলিশদের মতটা কী? চোখ বন্ধ করে উত্তরটা বলে দেওয়া যায়। সানি লিওন। তিনিই এখন সমাজ-গুরুদের চোখে কাঠগড়ার আসামি। তার উত্তরে সানি কী বলছেন? এক-আধবার মুখ খুললেও এত অভিযোগের জবাবে সানি লিওন মোটের ওপর চুপ। এক দিকে গোটা সমাজ, আর অন্যদিকে একা এক নারী— এত আক্রমণের মুখেও নীরব থেকে যুদ্ধ জয়ের ইঙ্গিতটা পরোক্ষে দিয়ে রাখলেন সানি লিওন।

সমাজে ধর্ষণ বাড়ছে। কারণ? সানি লিওনের কন্ডোমের বিজ্ঞাপন!

সমাজে ধর্ষণ বাড়ছে কেন? কারণ, পুরুষরা নারীবিদ্বেষী হয়ে উঠছেন। সেখানেও দায়ী সানি লিওনের উত্তেজক গানের দৃশ্য!

ভারতীয় বাম নেতা অতুলকুমার অনজান মন্তব্য। ‘‘সানির অশ্লীল বিজ্ঞাপনে দেশে ধর্ষণ বাড়ছে।’’

কিছু তথাকথিত সমাজকর্মীর দিল্লিতে যন্তর মন্তরের সামনে বিক্ষোভ— ‘সানি লিওন ওয়াপাস যাও, মেরে দেশ মে গন্ধ না ফেলাও’।

অতএব, কনট্রোভার্সি কুইন রাখি সবন্তের দাবি, সানিকে ভারতে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হোক।

এত সবের পরে সানি মাত্র একবারই টুইট করেছিলেন, “ক্ষমতাশালী লোকেরা নিজেদের কাজ ঠিকমতো করেন না। অথচ আমাকে নিয়ে ভেবে সময় নষ্ট করেন। এদের জন্য আমার কষ্ট হয়।”

 

Most searched কে?

পর্ন হাবের তথ্য অনুযায়ী যে ভারতে সানি লিওনের পর্ন ভিডিওতে ক্লিক হয় সবচেয়ে বেশি। গুগল সার্চে ‘সানি লিওন’ মোস্ট পপুলার কিওয়ার্ড! সে দেশে সানি কেন সফট টার্গেট? সমাজতত্ত্ববিদদের একাংশের মতে, সানিকে আমরা দেখছি সকলেই। তবে বন্ধ দরজার ভিতর। আর দরজার বাইরে এসেই সমস্বরে বলছি, সানি লিওন নিপাত যাক। নীতি পুলিশদের চোখ রাঙানি সামলে আমরা নিজেদের ‘শুদ্ধ’ ঘোষণার প্রতিযোগিতায় নেমেছি।

এই দ্বিচারিতার কারণ কী? পর্ন ছবিতে সানি এত জনপ্রিয় না হলে কিন্তু তাঁকে নিয়ে এত আলোচনা হত না! পর্ন নায়িকাকে মেনস্ট্রিমে এন্ট্রি দিতেই কি এত আপত্তি সমাজ-বোদ্ধাদের? তাঁর ‘জনপ্রিয়তাই’ কি বলিউডে তাঁর ঈর্ষার কারণ?

সানির উত্থানের ইতিহাস খুঁজলে দেখা যাবে— ২০১১। ভারতীয় দর্শকদের সঙ্গে তাঁর প্রথম প্রকাশ্য পরিচায় ‘বিগ বস’এর হাত ধরে। তখনও তাঁর পরিচয় তিনি ইন্দো-কানাডিয়ান পর্ণ স্টার।

কাট টু ২০১৫। পাঁচ বছর পরে ‘জিসম ২’, ‘রাগিনী এমএমএস টু’, ‘এক পহেলি লীলা’ সহ একগুচ্ছ ছবি সানির ঝুলিতে। কর্ণ জোহরের আগামী ছবিতেও অভিনয় করবেন তিনি। হাতে রয়েছে বিভিন্ন টেলিভিশন শোয়ের অফার। তবুও আপামর দর্শকদের কাছে তিনি এখনও পর্ন-স্টার। পরিচালকরাও এখনও তাঁর পর্ন ইমেজের কথা মাথায় রেখেই তাঁকে কাস্ট করছেন। দর্শকরাও তাঁকে খোলামেলা দৃশ্যেই দেখতে চাইছেন। ফলে রাখি সবন্তের মতো অনেকেরই মন্তব্যের জবাব না দিয়ে বুদ্ধিমত্তার পরিচয়ই দিলেন সানি লিওন। কারণ বলিউডি মেনস্ট্রিমে পায়ের তলায় মাটি পাওয়ার ক্ষেত্রে এখন একাগ্র তিনি।

সূত্রঃ আনন্দবাজার

>
বাংলা ইনিশিয়েটরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।