প্রচ্ছদ » সাইন্স ভিউ » বিজ্ঞান ফিচার » আজ দেখা মিলবে সুপার মুনের

আজ দেখা মিলবে সুপার মুনের

রাতের আঁধারে চাঁদ যেমন সুন্দর, সেই সুন্দরকে চোখ মেলে দেখতেও মানুষের উৎসাহের শেষ নেই। যদি চাঁদ এর আকার হয় স্বাভাবিকের চেযে বড় ,আর যদি নেমে আসে পৃথিবীর কাছে তাহলে তো কথাই নেই! মানুষের কাছে চাঁদকে আরো স্পষ্ট করে দেওয়ার সুযোগ করে দিয়েছে চাঁদ নিজেই! কারন আজ রাতেই মিলছে এ সুযোগ।

আজ দেখা মিলবে সুপার মুন বা বড় চাঁদের। আর এর রং হবে রক্তলাল। চাঁদ যখন তার স্বাভাবিক অক্ষ থেকে কিছুটা সরে এসে পৃথিবীর কাছাকাছি অবস্থান করে তখন আকাশে ‍সুপারমুন দেখা যায়। এ সময় চাঁদ স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি উজ্জ্বল ও বড় দেখায়। তবে চাঁদের এ আকার খুব স্বল্প সময়ের জন্য স্থায়ী হয়। চন্দ্রগ্রহণের সময় পৃথিবীর ছায়া গিয়ে পড়ে চাঁদের উপর। পৃথিবীর বায়ূমন্ডল ভেদ করে সূর্য্যের যে কিরণ মহাশূন্যের দিকে যায়, সেই কিরণের কারণে চন্দ্রগ্রহণের সময় চাঁদ লাল, বাদামি বা কালো রং ধারণ করে।

বিজ্ঞানীরা বলছেন, এবার চন্দ্রগ্রহণের সময় চাঁদের রং হতে পারে রক্তলাল। এদিন চাঁদ পৃথিবী থেকে প্রায় ২,২৬,০০০ মাইল দূরে অবস্থান করবে, স্বাভাবিক আকারের চেয়ে ১৪ ভাগ বড় দেখা যাবে এবং স্বাভাবিকে তুলনায় ৩০ ভাগ বেশি আলোকিত হবে। আকাশ যদি পরিস্কার থাকে তাহলে উত্তর থেকে দক্ষিণ আমেরিকা, ইউরোপ, আফ্রিকা, পশ্চিম এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরের পূর্ব প্রান্ত থেকে ‘রক্ত বর্ন চাদের’ দেখা মিলবে। মার্কিন সময় রোববার রাত ৮টা ১১ থেকে শুরু হবে গ্রহণ। দুঘণ্টা পরে পূর্ণগ্রহণ, থাকবে মোটামুটি ১২ মিনিট। এই রকম চন্দ্রগ্রহন বা সুপার মুন দেখা গিয়েছিল ১৯১০, ১৯২৮, ১৯৪৬, ১৯৬৪ সালে এবং সর্বশেষ ১৯৮২ সালে।আবার সুপারমুনকে দেখতে প পৃথিবী বাসীকে অপেক্ষা করতে হতে পারে ২০৩৩ সাল পর্যন্ত।

>
বাংলা ইনিশিয়েটরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।