প্রচ্ছদ » আন্তর্জাতিক » ভারতে চোর সন্দেহে ছাত্রকে মার, অপমানে ছাত্রের আত্মহত্যা

ভারতে চোর সন্দেহে ছাত্রকে মার, অপমানে ছাত্রের আত্মহত্যা

চোর অপবাদ দিয়ে ডায়মন্ড হারবার, কলকাতার হরিদেবপুরে দুই ছাত্রকে পিটিয়ে মারার অভিযোগ উঠেছিল কয়েক মাস আগে। সোমবার চন্দননগরে আবার একই অপবাদে এক ছাত্রকে তুলে নিয়ে গিয়ে মারধর করা হয়েছে। সেই  রাতেই ঋষভ চট্টোপাধ্যায় (১৯) নামে ওই ছাত্রের ঝুলন্ত মৃতদেহ ঘর থেকে উদ্ধার হয়।

ঋষভের পরিবারের অভিযোগ, বাড়ি ফিরে অপমানে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে সে। আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগ আনা হয়েছে এক তৃণমূল কাউন্সিলরের দুই ভাইয়ের বিরুদ্ধে। ঋষভের মায়ের ওই অভিযোগের ভিত্তিতে প্রদীপ এবং বাবলু অগ্রবাল নামে দুই ভাইকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে খবর, খলিসানি জেলেপাড়ায় একই বাড়িতে ভাড়া থাকেন ঋষভের পরিবার এবং প্রদীপ ও এবং বাবলু। দিন কয়েক আগে বাবলুদের ঘর থেকে একটি মোবাইল ফোন চুরি যায় বলে অভিযোগ। তার কয়েক দিন আগে সোনার গয়নাও চুরি হয় বলে অগ্রবাল পরিবারের অভিযোগ। মোবাইল চুরি যাওয়ার পর অগ্রবাল পরিবার ঋষভ-সহ আরও কয়েক জনকে সন্দেহ করে। তার জেরেই এ দিন তাঁকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে মারধরের অভিযোগ ওঠে প্রদীপ ও বাবলুর বিরুদ্ধে।

আরও পড়ুনঃ চলন্ত বাস থেকে ধাক্কা মেরে স্কুলছাত্রকে ফেলে দিল কন্ডাক্টর

 

বাংলা ইনিশিয়েটর/১৯/০৭/২০১৬/এস এস কে/ রাবি

 

 

 

>
বাংলা ইনিশিয়েটরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।