প্রচ্ছদ » বাংলাদেশ » শিক্ষকের উপর হামলার প্রতিবাদে উত্তাল কুলাউড়া

শিক্ষকের উপর হামলার প্রতিবাদে উত্তাল কুলাউড়া

তাহমিদুজ্জামান রাফি, কুলাউড়া প্রতিনিধি , বাংলা ইনিশিয়েটর

মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার কর্মধা ইউনিয়নের হায়দরগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক পরিমল মালাকারের উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে উত্তাল কুলাউড়া । রবিবার (০৭ আগস্ট) বিকাল সাড়ে ৫ টায় দুই বখাটে প্রধান শিক্ষকের উপর হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা ।

জানা যায়, গত কিছুদিন আগে হায়দরগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ে পরিচালনা পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতি প্রার্থী ছিলেন সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুস সহিদ বাবুল ও বর্তমান চেয়ারম্যান মো: আতিকুর রহমান আতিক। পরিচালনা পর্ষদের সর্বমোট ভোট ০৯ টি। এতে সর্বোচ্চ ভোট পেয়ে সভাপতি নির্বাচিত হোন সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান বাবুল। এদিকে হায়দরগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের নব গঠিত কমিটিতে কর্মধা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুস সহিদ বাবুলকে সভাপতি করায় ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে বর্তমান চেয়ারম্যান মো: আতিকুর রহমান আতিকের স্বজনরা। চেয়ারম্যান আতিকের ভাগ্নে শুভ শিক্ষক পরিমলকে মারধর করার পরিকল্পনা নেয়। পরিকল্পনা অনুযায়ী বাসায় ফেরার জন্য শিক্ষক পরিমল গাড়ির অপেক্ষা করছিলেন। এমন সময় শুভ মোটরসাইকেল নিয়ে নিজেকে সাবেক ছাত্র পরিচয় দিয়ে শিক্ষক পরিমল মালাকারকে এগিয়ে দিয়ে আসার অযুহাত দিয়ে মোটর সাইকেলে তুলে। কিছুদূর যাওয়ার পর হায়দরগঞ্জ বাজার থেকে আরেক বখাটেকে তার গাড়িতে তুলে শুভ। এরপর কিছু সামনে এসে হঠাৎ শিক্ষক পরিমলকে সে জিজ্ঞাসা করে শিক্ষক পরিমলকে এলাপাতাড়ি মারধর শুরু করে। তিনি আত্মরক্ষার্থে চিৎকার দিয়ে মোটরসাইকেল থেকে লাফ দিয়ে নিচে পড়ে যান। পরে তার চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে এসে আহত শিক্ষককে উদ্ধার ও ধাওয়া করে ওই দুই বখাটেকে আটক করেন।

এ নিয়ে সোমবার (০৮ আগস্ট) সকাল ১০ টা থেকে দুপুর ০১ টা পর্যন্ত রবির বাজার-মুড়ইছড়া সড়ক অবরোধ করে বখাটেদের শাস্তির দাবি জানিয়েছেন কর্মধা ইউনিয়বের সর্বস্তরের জনগন। স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা, এলাকার বিক্ষুব্ধ জনতা গাছের গুড়ি, বাঁশ, স্কুলের ডেস্ক ফেলে সড়ক অবরোধ করে রাখেন। হামলার প্রতিবাদে ২ দিনের কর্মসূচি ঘোষণা দিয়েছে মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতি। এঘটনার সাথে জড়িত সন্ত্রাসী ও তাদের গডফাদারদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে উপজেলার সবক’টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গতকাল বুধবার (১০ আগস্ট) ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত একযোগে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে।

কর্মসূচিতে কুলাউড়া উপজেলার শিক্ষক, ছাত্র সচেতনসমাজ। মানববন্ধনে একাত্মতা পোষণ করেছেন বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা। দ্বিতীয় দিনের কর্মসূচির অংশ হিসেবে আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ২টায় কুলাউড়া উপজেলা কেন্দ্রিয় শহীদ মিনারে মানববন্ধন পালন করবেন উপজেলার সকল মাধ্যমিক বিদ্যালয়, কলেজ ও মাদ্রাসার শিক্ষক-কর্মচারীরা।

ইতোমধ্যে এ ঘটনায় শিক্ষক পরিমল মালাকার নিজে বাদী হয়ে কুলাউড়া থানায় মামলা দায়ের করেছেন। বর্তমানে তিনি কুলাউড়া সরকারী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। ঘটনায় ওই দুই বখাটে পুলিশী পাহারায় সিলেট ওসমানী হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কুলাউড়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ শামসুদ্দোহা পিপিএম জানান, এ বিষয়ে মামলা দায়ের করা হয়েছে। আসামীদের গ্রেফতার করা হয়েছে। বর্তমানে তারা পুলিশী পাহাড়ায় সিলেটে চিকিৎসাধীন আছে।

বাংলা ইনিশিয়েটর/১১/০৮/২০১৬/এস এস কে/ সাব্বির/রাফি

>
বাংলা ইনিশিয়েটরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।