প্রচ্ছদ » উড়াল » ফিচার » চাকার সাথেই সখ্যতা রাহির

চাকার সাথেই সখ্যতা রাহির

তাহমিদুজ্জামান রাফি, কুলাউড়া

14054627_1749220752002055_2134639295_n_Fotor

কুলাউড়ার বিভিন্ন রাস্তায় প্রায়ই শিশুটিকে চাকা নিয়ে খেলতে দেখা মিলে । এক রাস্তা দিয়ে অন্য রাস্তায় যাচ্ছে, সাথে আছে পথ সঙ্গী রিক্সার চাকা।

আমি সেদিন রাস্তা দিয়ে হাটছিলাম। হঠাৎ দেখি সেই চাকাওয়ালা শিশুটিও রাস্তাটি দিয়ে হাটছে । ওর সাথে আমিও হাটা শুরু করলাম কিছু জিজ্ঞেস করব বলে।

ওর নাম রাহি । বয়স ১০ বা ১১ বছর হবে। তার চলাফেরা কিছুটা বুদ্ধি প্রতিবন্ধি শিশুদের মতো। বাড়ি কুলাউড়া উপজেলার কাদিপুর ইউনিয়নের পেকুর বাজারে। মা-বাবার সাথে সে পেকুর বাজারের কলনিতে থাকে। তার বাবার ছোটখাটো চায়ের দোকান আছে। আর তার মা বাসাবাড়িতে কাজ করে।

রাহি বলে, “কোন কাজ না থাকলে রাস্তায় চাকা নিয়া খেলি। এতে বেশ ভালই লাগে। আগে লেবুর হোটেলে কাম করতাম। হোটেলের কর্মচারীরা আমারে মারধর করে বলে দোকান থাকিয়া বের হইয়া আইছি।”

ও আরও বলে, “এখন পেকুর বাজারের মসজিদে কামের পানি দেই । মাঝে মাঝে পেকুর বাজারের দোকানগুলোতেও পানি দেই। এতে দিনে কিছু একটা খাইয়া নিতে পারি।” রাহি এখনও প্রাথমিক শিক্ষা গ্রহণ করে নি। তবে সে রমজান মাসে দারুন কেরাতে যায়।

ও বলে, “রমজান মাসে দারুন কিরাতে মাদ্রাসায় যাইতাম। এখন আর রমজান মাস না তাই মাদ্রাসায় যাই না।”

রাহি ঘুম থেকে উঠে কাজ থাকলে কাজ, তা না হলে চাকা নিয়ে ঘুরে ঘুরে খেলে। এছাড়া রাত হলে মা-বাবার সাথে ঘুমের মাধ্যমে তার সারাদিনের কাজের সমাপ্ত হয় ।

>
বাংলা ইনিশিয়েটরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।