প্রচ্ছদ » বাংলাদেশ » শেষ মূহুর্তের ঈদের বাজার

শেষ মূহুর্তের ঈদের বাজার

প্রকাশ : ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৬৫:৩৭:৪২ অপরাহ্ন

মিনার মাহবুব, বাংলা ইনিশিয়েটর

14281307_1572295919745753_693804508_n-2_fotor

বছর ঘুরে আবার এলো মুসলমান সম্প্রদায়ের আনন্দের আরেকটি বড় উপলক্ষ্য ঈদুল আযহা। কালকের ঈদকে সামনে রেখে বেশ আনন্দ বিরাজ করছে চারদিকে। প্রথমদিকে একটু ঢিলেঢালাভাবে শুরু হলেও শেষ মুহূর্তে বেশ জমে উঠেছে পশুর হাট। গতবারের তুলনায় এবার পশুর দাম তুলনামূলকভাবে চড়া। তবে,এই চড়া দাম মোটেও মুসলমানদের সৃষ্টিকর্তার প্রতি ভালোবাসা প্রকাশ থেকে বিরত রাখতে পারছে না।

এবার পশুর দাম যে চড়া, অন্যান্য গরু ব্যবসায়ীদের পথে না হেঁটে ব্যাপারটা স্বীকার করে নিলেন রংপুরের খোলাহাটি থেকে আগত আহাদ শেখ। তিনি জানালেন,”ভারত থাইকা এবার গরু আইতে পারে নাই তো,তাই চাহিদার তুলনায় গরু অনেক কম। তাই দামটা একটু চড়া।” এই চড়া দাম উপেক্ষা করেই গরু কিনে হাসিমুখে গরুর দড়ি ধরে বাড়ি ফিরছে মানুষ।

বড় বড় শো-রুমগুলোর পাশাপাশি রমরমা ব্যবসা চলছে রাজধানীর ফুটপাথগুলোয়। গুলিস্থান,ফার্মগেট এবং মিরপুর এলাকায় গিয়ে দেখা যায় ঈদের শেষ প্রস্তুতির তোড়জোড়। এ ফুটপাথে মধ্যবিত্ত শ্রেণীর ক্রেতার আধিক্যই বেশি। তবে,এই ভিড়ের কারণে মোটামুটি অসুবিধায় পড়ছে সাধারণ পথচারীরা। ঈদকে কেন্দ্র করে বেশ চড়া মশলার বাজার। স্থিতিশীলতা বিরাজ করছে সবজির বাজারে, কমেছে মুরগির দাম।

ঈদের আনন্দ প্রিয় মানুষগুলোর সাথে ভাগাভাগি করে নিতে আজও ঢাকা ছেড়ে যাচ্ছে মানুষজন।রাজধানীর বাস টার্মিনালগুলোয় এবং কমলাপুর রেলস্টেশনে বেশ জনসমাগম পরিলক্ষিত হল। ঢাকার জনসংখ্যার একটা বিরাট অংশ গ্রামে চলে যাওয়ায় কমে গিয়েছে যানজট। স্বস্তিতে চলাফেরা করছে ঢাকার মানুষ। ঈদের জামাতের জন্য প্রস্তুত হচ্ছে জাতীয় ঈদগাহ ময়দান।আগের চেয়ে এবার আরো বেশি নিরাপত্তার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর একজন সদস্য জানালেন,ঈদুল ফিতরে শোলাকিয়ায় হওয়া পুনরাবৃত্তি যাতে না ঘটে সেজন্য নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। ঈদ মানে আনন্দ। ঈদ মানে খুশি।ঈদ সবার জন্য বয়ে আনুক অনাবিল সুখ-শান্তি। ঈদ মুবারক!

বাংলা ইনিশিয়েটরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।