প্রচ্ছদ » খেলাধুলা » সিরিজ জেতা হল না বাংলাদেশের

সিরিজ জেতা হল না বাংলাদেশের

 নুহিয়াতুল ইসলাম লাবিব, বাংলা ইনিশিয়েটর, ঢাকা

england-v-bangladeshবৃষ্টির কারণে মাঠে ম্যাচ আদৌ গড়াবে কি না তা নিয়েই প্রথমে সন্দেহ ছিল । তবে সিরিজ নির্ধারনি ম্যাচের মতো জমজমাট ম্যাচে বৃষ্টি বাঁধা হয়ে আসতে পারে নি । আগের দুদিনের বৃষ্টিতে উইকেট বেশ স্লো হয়ে গেলেও টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে টাইগাররা নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৬ উইকেটে ২৭৭ রান করে ইংল্যান্ডকে চোখে আঙ্গুল দিয়ে বুঝিয়ে দিয়েছিল স্লো পিচে ব্যাটিংটা তারা ভালোই পারে।

শুরু থেকেই তামিম আর ইমরুল ইংল্যান্ড ক্যাপ্টেন জস বাটলারের কপালে চিন্তার ভাঁজ ফেলে দেয়। দশম ওভারের পঞ্চম বলে ইনিংসের প্রথম ছয়ের মাধ্যমে দলীয় ফিফটি আসে ইমরুলের ব্যাট থেকে। বামহাতি এই দুজন ওপেনার  ওপেনিং জুটিতে কেবল অর্ধশতই করেনি, গড়েছেন ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ ওপেনিং জুটির রেকর্ড(৮০)। তবে দুজনের একজনও ব্যাক্তিগত ফিফটিতে পৌছাতে পারেন নি। তামিম ইকবাল পঞ্চাশ না ছুঁতে পারলেও ওয়ানডেতে ছুঁয়েছেন ৫০০০ রানের মাইলফলক, এতে পৌছতে সময় লেগেছে ১৫৯ টি ওয়ানডে  । ৪৬, ৪৫, ৪৯ রানে ইমরুল, তামিম, আর সাব্বির ফিরে যাওয়ার পর বেশ আক্ষেপের জন্ম নেয় জহুরূল হক স্টেডিয়ামে।পঞ্চাশ ছুঁই ছুঁই করেও অদৃশ্য এক কারণে পঞ্চাশ ছুঁতে পারছিল না কোনো ব্যাটসম্যানই

অবশেষে গত ২১ ম্যাচে অর্ধশত করতে না পারা মুশফিক ৬২ বলের ৬৭ রানের দারুণ ইনিংসের মাধ্যমে দর্শকদের আক্ষেপ দূর করে দেয়। তামিম, ইমরুল, আর সাব্বির আউট হবার পর বেশ দ্রতই মাহমুদুল্লাহ, সাকিব, আর নাসির চলে যাওয়ার পর খানিকটা চাপে পড়ে গেলে মুশফিক আর মোসাদ্দেকের ৮৫ রানের পার্টনারশিপই বাংলাদেশকে পুনরায় কক্ষপথে ফিরাতে সহায়তা করে। অবশেষে ৫০ ওভার শেষে ২৭৭ রানে থামে টাইগারদের রথযাত্রা |তবে ম্যাচে জিততে হলে বোলিং পর্বটাও যে ভালো করতে হবে টাইগারদের । কিন্তু প্রথম থেকেই বোলিংটা যেন ছন্দবিহীন ছিল।গত ম্যাচের টাইগারদের যে বোলিং ছিল তার বিন্দুমাত্র ছোঁয়াও যেন ম্যাচে ছিল না।

ইংলিশদের  ওপেনিং জুটি থেকে শুরু করে প্রত্যেক জুটিই ছিল বেশ সাজানো গোছানো। তাই তো হেসে খেলেই ২৭৮ রানের টার্গেটে পৌছলো ইংল্যান্ডরা। এই সিরিজ হারায় টানা সাত সিরিজ জেতা হলো না টাইগারদের। তবে বেশ কিছু রেকর্ড সৃষ্টি হয়েছে এ ম্যাচের মাধ্যমে। ওয়ানডেতে বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ উইকেটশিকারি বোলার এখন টাইগার ক্যাপ্টেন মাসরাফি।তবে এতো বড় অর্জনেও ম্যাচ হারায় মাসরাফির অর্জন কোনো খুশি বয়ে আনতে পারে নি । এই সিরিজ হারলেও পরবর্তী নিউজল্যান্ডের সাথে ওয়ানডে সিরিজে নিশ্চয়ই ঘুরে দাঁড়াবে টাইগাররা। তবে আপাতত ইংল্যান্ডের সাথে যে টেস্ট সিরিজ আছে তাতেই দৃষ্টি রাখছেন টাইগাররা।

 

>
বাংলা ইনিশিয়েটরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।