প্রচ্ছদ » খেলাধুলা » এবারো কি হবে “বাংলাওয়াশ” ?

এবারো কি হবে “বাংলাওয়াশ” ?

 নুহিয়াতুল ইসলাম লাবিব, বাংলা ইনিশিয়েটর, ঢাকা

নিউজিল্যান্ডের সাথে বাংলাদেশের সিরিজ এলেই “বাংলাওয়াশ” শব্দটির কথা মনে পড়ে যায়। ২০১০ সালে ৫ ম্যাচ সিরিজের চারটি ম্যাচ জিতেই (১ টি ম্যাচ বৃষ্টির কারণে পরিত্যাক্ত) বাংলা অভিধানে নতুন একটি শব্দ হিসেবে “বাংলাওয়াশ” শব্দটির অন্তর্ভুক্তি হয়।

এর পর থেকে ঘরের মাটিতে নিউজিল্যান্ডকে হোয়াইট ওয়াশ করা যেন রীতিমতো ডাল ভাতে পরিনত হয়ে গেছে  বাংলাদেশের কাছে । ২০১০ সালের পর ২০১৩ সালের অক্টোবর মাসে আবারো সেই নিউজিল্যান্ডকে একেবারে নাকানি চুবানি দিয়ে নিউজিল্যান্ড পাঠিয়ে দিয়েছিল টাইগাররা। তবে ২০১৩ সালের পর নিউজিল্যান্ডদের বিরুদ্ধে আর কোনো পূর্নাংগ সিরিজ খেলা হয় নি ২০১৬ সালের নভেম্বর মাস পর্যন্ত। তবে ২৬ ডিসেম্বরেই আবার মুখোমুখি হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ ও নিউজিল্যান্ড। স্বভাবতই প্রশ্ন চলে আসে বাংলাদেশ কি আবারো নিউজি্ল্যান্ডকে হোয়াইট ওয়াশ করতে পারবে ? আগের দুটি সিরিজে নিউজিল্যান্ডকে ধবলধোলাই করলেও এবার সমীকরণটি বেশ কঠিন টাইগারদের জন্য।কেননা নিউজিল্যান্ডের সিমিং কন্ডিশানে খেলে টাইগাররা অতো অভ্যস্ত না। আর নিজের দেশে সব টিমই যেন পরাশক্তি হয়ে ওঠে।

তবে নিউজিল্যান্ডের আবহাওয়ার সাথে  নিজেদের খাপ খাইয়ে নিতে অস্ট্রেলিয়াতে ৯ দিনের একটি ক্যাম্প করা হয়েছে টাইগারদের। সেখানে টাইগারদের জন্য প্রতিদিন ৪-৫ ঘন্টা প্র্যাকটিসের ব্যবস্থা করা হয়।তাছাড়া বিগ ব্যাশের দুটি টিম সিডনি থান্ডারস এবং সিডনি সিক্সার্সের সাথে ম্যাচ দুটি বেশ ভালোভাবেই মানিয়ে নিতে সাহায্য করেছে মাসরাফি বাহিনীদের।তবে আপাততো সবার চোখ এখন নিউজিল্যান্ডের প্রস্তুতি ম্যাচের দিকেই। ওই ম্যাচটি খেললে পিচ কন্ডিশান, আবহাওয়া সবকিছুই বেশ ভালোই বোঝা যাবে।

টাইগার অধিনায়ক মাসরাফি কিন্তু সিরিজ জেতা অসম্ভব হিসেবে দেখছেন না তবে সিরিজ জেতাটা যে কষ্টকর হবে তা মানতেই হচ্ছে তাকে।

আগামী ২৬ ডিসেম্বর প্রথম ওয়ানডের ম্যাচের মাধ্যমে সিরিজটি শুরু হতে যাচ্ছে । প্রায় ৫০ দিনের এই দীর্ঘ সিরিজে বাংলাদেশ তিনটি ওয়ানডে, দুটি টি টোয়েন্টি, ও দুটি টেস্ট ম্যাচ খেলবে।

এই সিরিজকে ঘিরে সবচেয়ে বেশি আলোচিত বিষয় হচ্ছে মুস্তাফিজের ফিরে আশা।সবকিছু ঠিক থাকলে প্রথম ম্যাচেই মুস্তাফিজকে মাঠে বল হাতে দেখা যাবে। মুস্তাফিজের ফিরে আশাতে সবার মাথায় একটা প্রশ্নই ঘুরপাক খাচ্ছে , এবারো হবে নাকি আরেকটা বাংলাওয়াশ!!!

>
বাংলা ইনিশিয়েটরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।