প্রচ্ছদ » খেলাধুলা » রেকর্ডবয় নাকি রেকর্ডময় সাকিব!!!

রেকর্ডবয় নাকি রেকর্ডময় সাকিব!!!

বায়োজিদ আল মাহমুদ, বাংলা ইনিশিয়েটর, ঢাকা

একের পর এক রেকর্ড গড়েই যাচ্ছেন কিন্তু বরাবরের মতো সেই চিরচেনা বিনয়ের হাসি সাকিবের মুখে।সেই হাসিতে বিন্দু পরিমান দাম্ভীকতার ছোঁয়া নেই,  নেই কোনো অহংকার। কখনোই তার রেকর্ড নিয়ে মাথা ব্যথা ছিল না কেবল বলেন, জেনে ভালো লাগে আর কিছুনা, দেশের জন্য কিছু করতে পারাটাই তার কাছে সবচেয়ে বেশি আনন্দের। আজকেও তার ব্যতিক্রম কিছু বললেন না।

কিন্তু মাথা ব্যথা থাকুক না থাকুক রেকর্ড তো করেই চলেছেন একেরপর এক। নিউজিল্যান্ডের সাথে প্রথম টেস্টের ২য় দিনে যেমন রেকর্ডের ফুলঝুরি ছোটালেন। ব্যক্তিগত ৭১ রান দরকার ছিলো টেস্টে ৩০০০ রানের মাইলফলক ছুতে। আর তা করে বনে গেলেন বাংলাদেশের ৩য় তিন হাজারি খেলোয়াড়। সাকিবের আগে হাবিবুল বাসার ও তামিম ইকবাল তিন হাজার রানের মাইলফলক ছুঁয়েছেন।

সেই সাথে ঢুকে গেলেন টেস্টে ১৫০ উইকেট ও তিন হাজার রান করা ১৪ সদস্যের একটি অভিজাত ক্লাবে যেখানে তার আগে মাত্র ১৩ জনের আছে এমন কীর্তি। উপমহাদেশের ক্রিকেটারদের মধ্যে পঞ্চম ক্রিকেটার হিসেবে রেকর্ডটির মালিক এখন সাকিবে দখলে।

তবে অলরাউন্ডারদের তালিকা সামনে আনলে এ সংখ্যা দাঁড়ায় ৮জনে। গড়ের পার্থক্যে টেস্টে অলরাউন্ডারদের তালিকায় সাকিব এখন পঞ্চম গড় (৪০.০২)। তার উপরে আছেন যথাক্রমে স্যার গ্যারি সোবার্স, জ্যাক ক্যালিস, ইমরান খান, শন পোলক।

উপমহাদেশের ক্রিকেটারদের মধ্যে সাকিবের আগে নিউজিল্যান্ডের মাটিতে ডাবল সেঞ্চুরি করেছেন মাত্র পাচঁ জনের।

টেস্টে ৩য় বাংলাদেশি হিসেবে ডাবল সেঞ্চুরি করেছেন সেটা তো জানাই। সাথে ২১৭রান করে বন্ধু তামিমকে পিছনে ফেলে এখন টেস্টে বাংলাদেশের পক্ষে সর্বোচ্চ রানের মালিক সাকিব। তামিমের ছিলো ২০৬রান।

সাথে এক ইনিংসে বাংলাদেশের পক্ষে সবচেয়ে বেশি বাউন্ডারির রেকর্ডও নিজের করে নিয়েছেন সাকিব(৩১)। আগে যেটা ছিলো মমিনুল হকের(২৭)।

২ টেস্টের সিরিজে এই টেস্টের বাকি আরো ৩দিন। আর এই তিনদিনে আরো কতকিছু বাকি রেখেছে ওয়েলিংটনের বেসিন রিজার্ভ সেটাই এখন দেখার পালা।

>
বাংলা ইনিশিয়েটরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।