প্রচ্ছদ » বাংলাদেশ » নবাবগঞ্জে তথ্য-প্রযুক্তি মেলা অনুষ্ঠিত

নবাবগঞ্জে তথ্য-প্রযুক্তি মেলা অনুষ্ঠিত

আরাফাত ইসলাম নয়ন | বাংলা ইনিশিয়েটর | নবাবগঞ্জ


ডিজিটাল বাংলাদেশ তৈরিতে বাংলাদেশ সরকার আন্তরিক ভাবে কাজ করে  যাচ্ছে। বিভিন্ন প্রযুক্তি সেবা সাধারন মানুষের হাতের নাগালে আনতে নানা প্রকল্প নিয়ে কাজ চলছে। আধুনিক কালে বিশ্বজুড়ে তথ্য প্রযুক্তির জয় জয়কার। তথ্য প্রযুক্তির হাত ধরে বিশ্ব এখন মানুষের হাতের মুঠোয়। বাংলাদেশ ও তথ্য প্রযুক্তি খেকে পিছিয়ে নেই। গত দশ বছরে বাংলাদেশে ক্রমান্বয়ে প্রযুক্তির বিকাশ ঘটেছে। স্কুল কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশব্যাপী তরুণ প্রজন্ম তথ্য প্রযুক্তির ব্যাপারে আগ্রহী।

বাংলাদেশে বিভিন্ন জরিপ সূত্রে জানা গেছে গত দশ বছরে আমাদের দেশ তথ্য প্রযুক্তির প্রতিটি ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি লাভ করেছে। এই ধরাবাহিকতায় এই সপ্তাহকে জাতীয় ৩৮ তম তথ্য প্রযুক্তি সপ্তাহ ঘোষনা করে সরকার। এই উপলক্ষে প্রথমবারের মত নবাবগঞ্জে আয়োজন করা হয় জাতীয় ৩৮ তম তথ্য প্রযুক্তি মেলার। এই মেলা দুই দিনব্যাপী চলে ৩০- ৩১ জানুয়ারী। এই মেলায় অংশগ্রহন করে নবাবগঞ্জের প্রায় ২৬ টি স্কুল ও কলেজ।  মেলা সকাল ১০ টা থেকে ৪টা পর্যন্ত সবার জন্য উন্মুক্ত ছিল। অনেক ধরনের প্রজেক্টের সমাহার ছিল এই মেলায়। । এছাড়াও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে কবিতা আবৃতি, গান, নিত্য, গজল ইত্যাদি পরিবেশন হয়। প্রথম বার নবাবগঞ্জে ভিন্ন ধরনের মেলার কথা শুনতে পেয়ে  আগ্রহের সাথে দেখতে আসে সকল বয়সী মানুষ
মেলার উদ্বোধন করেন ঢাকা জেলা আওয়ামীলীগের সাধরন সম্পাদক। শেষ দিনে প্রধান অতিথি হিসাবে ছিলেন সালমা ইসলাম এমপি, বিশেষ অতিথি হিসাবে ছিলেন জনাব শাকিল আহম্মেদ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, নবাবগঞ্জ । এ সময় তারা প্রত্যেকটা স্টল ঘুরে দেখেন।

দিনের শেষ প্রহরে ফলাফল পেয়ে আনন্দিত অংশগ্রহণকারীরা। স্কুল পর্যায়ে ১ম স্থান অধিকার করে তুইতাল উচ্চ বিদ্যালয়, ২য় হয়  কলাকোপা কোকিলপ্যারী উচ্চ বিদ্যালয় এবং ৩য় স্থান পায় শোল্লা উচ্চমাধ্যমিক বিদ্যালয়। কলেজ পর্যায়ে ১ম  হয় দোহার-নবাবগঞ্জ সরকারি কলেজ, ২য়  সেন্ট ইউফ্রেজীস্ উচ্চ বিদ্যালয় এবং ৩য় হয় নবাবগঞ্জ পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ।

আয়োজকরা বলেন তথ্য প্রযুক্তি মেলা এখন থেকে প্রতি বছর আয়োজন করা হবে। কারণ তথ্য প্রযুক্তি-ই পারে আমাদের কে অতি তাড়াতাড়ি মধ্যআয়ের দেশে রুপান্তরিত করতে।

>
বাংলা ইনিশিয়েটরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।