প্রচ্ছদ » বাংলাদেশ » বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস আজ

বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস আজ

তারিক মাহমুদ রাতুল | বাংলা ইনিশিয়েটর

আজ ১৭ই মার্চ, জাতীয় শিশু দিবস এবং জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন। বাংলাদেশে প্রতি বছর বঙ্গাব্দে চৈত্র ৩ আর ইংরেজি সালের ১৭ই মার্চ এটি পালিত হয়।

১৯৯৬ সালে জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিনটিকে শিশু দিবস হিসেবে পালনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এদিন সরকারি ছুটি থাকে।

১৯২০ সালের এই দিনে গোপালগঞ্জ এর টুঙ্গিপাড়ায় জন্মগ্রহণ করেন শেখ মুজিবুর রহমান। যার সাহসী ও দৃঢ় নেতৃত্বে বাঙালি অনুপ্রাণিত হয়ে যুদ্ধ করে স্বাধীনতা অজর্ন করে।

মহান এ নেতার জন্মদিনকে  জাতীয় শিশু দিবস ঘোষনা করা হয়। আওয়ামীলীগ ও এর সহযোগী সংগঠনগুলো ছাড়াও দেশবাসী একযোগে এই দিবস পালন করছে। সরকারের পক্ষ থেকেও নানারকম উদ্দ্যোগ নেয়া হয়েছে।

দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক পৃথক বানী দিয়েছেন।

রাষ্ট্রপতি  তাঁর বাণীতে বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু বাঙালির চিরন্তন প্রেরণার উৎস। তাঁর কর্ম ও আদর্শ জাতির মাঝে চিরকাল বেঁচে থাকবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘শিশুদের প্রতি বঙ্গবন্ধুর মমতা ছিল অপরিসীম। তাই তাঁর জন্মদিনকে শিশুদের জন্য উৎসর্গ করে আমরা জাতীয় শিশু দিবস ঘোষণা করেছি।’

দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে জাতীয় শিশু দিবস পালনে নানা আয়োজন করা হয়েছে। স্কুল-কলেজ এর শিক্ষার্থীরা একসাথে জাতীয় সংগীত গায় এবং শপথ বাক্য পাঠ করে। এছাড়া শিশুদের জন্য সাংকৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজনওও করা হয়।

শিশু দিবসে শিশুদের প্রতি যত্নশীল হবার আহবান জানিয়ে মনোরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. একরামুল হক বাংলা ইনিশিয়েটরকে জানান, “শিশুদের প্রতি সকলের যত্নশীল হতে হবে। তাদের সাথে এমন আচরন ঠিক নয়, যা তাদের মনে গভীর প্রভাব ফেলে।”  আজকের শিশুরাই আগামীদিনের ভবিষ্যৎ – এই প্রতিপাদনেই আজ পালিত হচ্ছে জাতীয় শিশু দিবস।

আজ শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিসৌধে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করবেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাঁরা সেখানে ফাতেহা পাঠ ও বিশেষ মোনাজাতে অংশ নেবেন।

>
বাংলা ইনিশিয়েটরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।