প্রচ্ছদ » আমাদের সাহিত্য » বই পরিচয় » বই পরিচয়- রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেন নি

বই পরিচয়- রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেন নি

প্রকাশ : ২৭ মার্চ ২০১৭৭:৩৬:২৯ অপরাহ্ন

[pfai pfaic=”fa fa-user fa-spin ” pfaicolr=”” ] খাতুনে জান্নাত | বাংলা ইনিশিয়েটর

বইয়ের নামঃ রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেন নি
লেখকঃ মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিন
মূল্যঃ ২৭০ টাকা
পৃষ্ঠাঃ ২৭১প্রকাশকঃ বাতিঘর প্রকাশনী

বইয়ের নামটাতে ‘রবীন্দ্রনাথ’ থাকলেও মূল গল্পের সাথে কবিগুরুর কোনো সম্পর্ক নেই।

বরং এটি একটি রেস্টুরেন্টের নাম। যার থেকে গল্পের শুরু। ‘রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেন নি’ নামক অদ্ভুত রেস্টুরেন্টের মালিক এক রহস্যময়ী নারী। যার নাম মুশকান জুবেরি। নুরে ছফা নামে এক সাংবাদিক কোনো এক বিশেষ প্রজেক্ট হাতে নিয়ে ছোট্ট মফস্বল সুন্দরপুরে যায়। গল্পের শুরুটা সেখানেই। অদ্ভুত এই রেস্টুরেন্টের নাম যেমন আকর্ষণীয়,এর খাবার-দাবার তার চেয়ে দ্বিগুণ আকর্ষণীয়। রেস্টুরেন্টে আসা প্রতিটা মানুষ হাত চেটে খায় সেই রান্না। নুরে ছফাও তার ব্যতিক্রম করলো না। তবে রান্নার স্বাদের চেয়েও যেটা বেশি নুরে ছফাকে আকর্ষণ করলো,তা হলো মুশকার জুবেরির আচরণ। অভিজাত এই নারীর আচরণ যেন কিছুটা আকর্ষণ করলো নুরে ছফাকে। সে এই নারীর সম্পর্কে জানার জন্য ক্রমেই করতে লাগলো বিপদজনক সব কাজ। আর হতে লাগলো অদ্ভুত সব ঘটনার মুখোমুখি। শেষে মুশকান জুবেরির সম্পর্কে এমন এক তথ্য জানতে পারলো,যার কারণে থমকে গেল সে,থমকে যাবে সমস্ত পাঠক!

গল্পটি শুরু থেকে রহস্যে ভরপুর। শুধুমাত্র মুখবন্ধ পড়লেই বই বন্ধ করে আর ওঠা সম্ভব নয়। পুরো গল্পে মুশকান জুবেরির অদ্ভুত আচরণের কারণ শুধু নুরে ছফাকে নয়,পাঠককেও ভাবাবে। শুধুমাত্র মুশকান জুবেরি ছাড়া আরও কিছু রহস্যময় চরিত্র আছে এই গল্পে। ক্রমেই যা সামনে আসতে থাকে। এই গল্পের শুরুটা যেভাবে হয়েছিল,শেষটায় এর কিছুই অবশিষ্ট থাকেনা। গল্পের মোড় ঘুরে যায় অন্যদিকে।

লেখক তার এই গল্পে শেষ পর্যন্তই কোনো না কোনো রহস্য করে গেছেন। যার কারণে একবার পড়া শুরু করলে আর শেষ না করে ওঠার কোনো উপায়ই থাকে না। এর ভিন্ন ধরণের কাহিনীতে যেকোন পাঠক মুগ্ধ হতে বাধ্য। গল্পের শেষে পাঠকের মুখে এক অন্যরকম তৃপ্তির হাসি ফুটে উঠতে বাধ্য।

বাংলা ইনিশিয়েটরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।