প্রচ্ছদ » অনিয়ম » ৫০ মিনিট পর ফটোকপি প্রশ্নে এইচ এস সি পরীক্ষা

৫০ মিনিট পর ফটোকপি প্রশ্নে এইচ এস সি পরীক্ষা

 এম আর মুগ্ধ | বাংলা ইনিশিয়েটর
লালমাটিয়া মহিলা কলেজে আজ এইচ এস সি পরীক্ষায় নির্দিষ্ট সময়ের ৫০ মিনিট পর ফটোকপি করা প্রশ্ন দেয়া হয় বলে অভিযোগ করেছে কলেজটিতে পরীক্ষা দেয়া শিক্ষার্থীরা।পরীক্ষার জন্য নির্ধারিত ৩ ঘন্টা। বিজ্ঞান বিভাগে ২৫ মিনিট বরাদ্দ বহুনির্বাচনির জন্য। এবং বাকি ২ ঘন্টা ৩৫ মিনিট বরাদ্দ সৃজনশীলের জন্য। আর ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে বহুনির্বাচনির জন্য ৩০ মিনিট বরাদ্দ এবং সৃজনশীল এর জন্য ২ ঘন্টা ৩০ মিনিট। সঠিক সময়ে বহুনির্বাচনি অংশ হলেও সৃজনশীল অংশ শুরু হয় নির্দিষ্ট সময়ের ৫০ মিনিট পরে। তবে পরীক্ষা নির্ধারিত সময়ের পরই শেষ হয়।রাহাত নামে একজন পরীক্ষার্থী জানায়, বহুনির্বাচনির ৫০ মিনিট হঠাৎ সৃজনশীল প্রশ্ন আসে। প্রতি বেঞ্চে আমরা দুইজন করে বসি। সেখানে প্রতি দুইজনকে একটি করে প্রশ্ন দেয়া হয়। কিছুক্ষণ পর একজন আসে ফটোকপি করা প্রশ্ন নিয়ে। তারপর প্রতি বেঞ্চে একটি করে ফটোকপি করা প্রশ্ন দেয়া হয়।

এক ফোনালাপে লালমাটিয়া মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ বাংলা ইনিশিয়েটরকে জানায়, “আমরা নির্দিষ্ট সময়ে বহু নির্বাচনি শেষ করে সৃজনশীলের জন্য প্রশ্ন খুলি। তিন প্যাকেট প্রশ্ন আসে আমাদের এখানে যার প্রতিটিতে ২০০টি করে প্রশ্ন আসে। মোট ৬০০ প্রশ্ন আসার কথা ছিলো, তবে প্যাকেট খোলার পর আমরা দেখি তিনটি প্যাকেটে ২০ টি করে মোট ৬০ টি প্রশ্ন এসেছে। তাৎক্ষণিক ভাবে আমরা বোর্ড এ যোগাযোগ করি। বোর্ড থেকে কর্মকর্তা এসে পরিদর্শন শেষে প্রশ্ন ফটোকপি করার অনুমতি দিলে আমরা আধ ঘন্টা সময় নেই ফটোকপি করতে। তারপর আমরা প্রতিটি রুমে দ্রুত প্রশ্ন পাঠাই। এবং যতটুকু সময় ব্যয় হয়েছে ততটুকু সময় বেশি দেই।”

কলেজটিতে এবছর পরীক্ষা দিচ্ছে তেজগাঁও কলেজ, মোহাম্মদপুর মহিলা কলেজ, আগারগাও তালতলা সর. ক. উ. বিদ্যালয়, ইউনিভার্সিটি অফ উইমেন্স ফেডারেশন কলেজ এবং কলেজের শিক্ষার্থীরা।

>