প্রচ্ছদ » খেলাধুলা » “কে হাসবে শেষ হাসি”

“কে হাসবে শেষ হাসি”

শাফিন রহমান, বাংলা ইনিশিয়েটর

ফুটবল প্রেমিদের মনে ক্লাবের লিগের খেলা গুলোর জন্য এক আলাদা জায়গা থাকে। তার কারনও রয়েছে বটে। লিগের শেষ দিকের রোমাঞ্চগুলো তাদের কে যেনো অন্য এক জগতে নিয়ে যায়।
 
লালিগাও এইবার শেষ দিকে এসে ভালোই জমেছে বলা যায়। লালিগায় বরাবরই উচু স্থানে জায়গা দখল করে থাকে দুইটি ক্লাব। বার্সেলোনা আর রিয়াল মাদ্রিদ যেনো চিরপ্রতিদন্দী। প্রথম দিকে বার্সেলোনা এগিয়ে থাকলেও মাঝখানে টানা বেশ কিছু ম্যাচ ড্র এবং হারার ফলে রিয়েল মাদ্রিদ থেকে পিছিয়ে ২য় স্থানে এসে পরে। তবে রিয়েল এর জয়ের রথযাত্রা বার্সার মতো মাঝপথে এসে হোচট খায় নি ।নিজ গতিতেই এগিয়ে গেছে জিনেদিন জিদানের দল রিয়াল মাদ্রিদ ।
 
পয়েন্ট টেবিলে শীর্ষে থাকা রিয়াল মাদ্রিদ এই পর্যন্ত খেলেছে ৩৭টি ম্যাচ।এর মধ্যে জয় এসেছে ২৮ টিতে, অন্যদিকে ড্র করেছে ৬টি ম্যাচে এবং হেরেছে কেবল মাত্র ৩টি ম্যাচে।অপর দিকে চিরপ্রতিদ্বন্দী বার্সেলোনাও এই পর্যন্ত খেলেছে ৩৭ টি ।উভয় দলই সমান সংখ্যক ম্যাচ খেললেও জয়ের দিক দিয়ে পিছিয়ে বার্সেলোনা ৩৭ ম্যাচে জয় এসেছে ২৭ টি ম্যাচে, ড্র করেছে রিয়ালের সমান ৬টি, এবং হারার সংখ্যাটাও রিয়ালের থেকে একটি বেশি অর্থাৎ ৪টি। একটি ম্যাচ বেশি হেরে যাওয়ায় বার্সেলোনার পয়েন্টও রিয়ালের থেকে ৩ পয়েন্ট কম।বর্তমানে রিয়ালের পয়েন্ট ৯০ এবং বার্সেলোনার ৮৭।
 
বার্সেলোনার সামনে এখনো লা লীগা ছাড়াও আছে কোপা দেলরে এর ফাইনাল।এ সমপর্কে বার্সা কোচ লুই এনরিকে বলেছেন, “ আমাদের হাতের জিনিস গুলো আমরা জিততে চাই। লালিগা এবং কোপা দেলরে আমার টিম জিতে আসবে বলে আমার আত্মবিশ্বাস আছে”।তিনি আরো জানান যে তারা সকল ক্ষেত্রে নিজেদের পুরোটা দিয়ে খেলবেন।অপর দিকে রিয়াল যেনো কিছুটা স্বস্তিতেই আছে। তারা এক ম্যাচ পিছিয়ে বার্সেলোনার সমান ছিলো বর্তমানে সেই ম্যাচ ব্যবধান সমান হয়ে পয়েন্টে নিজেদের কে ৩ পয়েন্ট এগিয়ে নিয়েছেন। আবার ইউসিএল এর ফাইনালের জন্য এখন
অপেক্ষা করার আছে।
 
লীগে রিয়েলের একটি ম্যাচ হেরে যাওয়া বদলে দিতে পারে সব। বার্সেলোনাও সেই আশাই করবে এবং সাথে নিজেদের জেতা টাও নিশ্চিত করতে হবে তাদের। এখন শুধু এসবের শেষ দেখা বাকি ।
>
বাংলা ইনিশিয়েটরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।