প্রচ্ছদ » বাংলাদেশ » শেষ হলো একাদশ শ্রেনীতে ভর্তি কার্যক্রম: আবেদন করেনি ৯ শতাংশ শিক্ষার্থী

শেষ হলো একাদশ শ্রেনীতে ভর্তি কার্যক্রম: আবেদন করেনি ৯ শতাংশ শিক্ষার্থী

 সাব্বির রায়হান অপি, বাংলা ইনিশিয়েটর

গত ২৬ মে, দিবাগত রাত ১১টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির জন্য  আবেদনের নির্ধারিত সময় ছিল। তবে যারা আবেদনের টাকা জমা দিয়েও আবেদন করার সুযোগ পায় নি, তাদের জন্য সুযোগ থাকছে। তবে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় পাস করা শিক্ষার্থির ৯ শতাংশ এখনো আবেদন করে নি।

এবার মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) ও সমমানের পরীক্ষায় পাস করেছে এমন শিক্ষার্থীর সংখ্যা ১৪ লাখ ৩১ হাজার ৭২২ জন। আর নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে আবেদন করেছে ১৩ লাখ ৫ হাজার ২২৪ জন শিক্ষার্থী। অর্থাৎ নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে আবেদন করে নি ১ লাখ ২৬ হাজার ৪৯৮ জন শিক্ষার্থী।

গেল কয়েক বছরের ধারাবাহিকতায় এ বছরো অনলাইনে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির কার্যক্রম পরিচালিত হয়। ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের সাথে থেকে এবারও ভর্তি কার্যক্রমে কারিগরি সহায়তা দিচ্ছে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট)। একজন শিক্ষার্থী অনলাইন ও এসএমএসে সর্বনিম্ন ৫টি ও সর্বোচ্চ ১০টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ভর্তির জন্য আবেদন করার সুযোগ। গতবার যতগুলো কলেজে ভর্তির জন্য আবেদন করা হয়েছে তার সবগুলোর মেধাক্রম করে দিয়েছিল শিক্ষা বোর্ড। সেখান থেকে আসন অনুযায়ী শিক্ষার্থী ভর্তি করেছিল কলেজগুলো। তবে এর ফলে দুর্নীতি ও বিশৃঙ্খল পরিস্থিতির অভিযোগ উঠেছিলো। তাই এ বছর কিছুটা পদ্ধতিতে কিছুটা পরিবর্তন আনা হচ্ছে। শিক্ষার্থীদের করা আবেদন থেকে তাদের দেয়া পছন্দক্রম ও যোগ্যতা অনুযায়ী শুধুমাত্র একটি নির্দিষ্ট কলেজ ভর্তির জন্য নির্ধারন করে দেবে শিক্ষা বোর্ড। এবং এই ফল প্রকাশ করা হবে করা হবে ৫ জুন।

প্রথম পর্যায়ে আবেদনকৃত ১০টি কলেজেও যদি কোনো শিক্ষার্থী ভর্তির সুযোগ না পায়, তাহলে আরও দুই দফায় সে আবেদনের সুযোগ পাবে। অন্যদিকে এত বিশাল সংখ্যক শিক্ষার্থী আবেদন না করার পিছনে দুটি কারনকে ধারনা করা হচ্ছে। একটি এসএসসি-এর পরে বেশির শিক্ষার্থী ঝরে পরার প্রবনতা। আবার কারিগরির ডিপ্লোমা কোর্সেও ভর্তি হওয়াটাও অন্যতম কারন। এছাড়া মেয়েদের বাল্যবিবাহের ফলেও এমনটা হচ্ছে বলে ধারনা করছেন শিক্ষাবিদগন। ভর্তির কাজ শেষ করে আগামী ১ জুলাই থেকে সকল কলেজের ক্লাস শুরু হবে।

>
বাংলা ইনিশিয়েটরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।