প্রচ্ছদ » Uncategorized » ইংল্যান্ডকে হেসেখেলে হারালো সাউথ আফ্রিকা

ইংল্যান্ডকে হেসেখেলে হারালো সাউথ আফ্রিকা

প্রকাশ : ২৯ মে ২০১৭১০:৪৩:০৩ অপরাহ্ন

 

সিরিজের  শেষ ওয়ানডে ম্যাচে লন্ডনের লর্ডসে আজ সাউথ আফ্রিকার মুখোমুখি হয়েছিল ইংল্যান্ড। আগের দু ম্যাচ প্রতিদ্বন্দ্বিতার সাথে বেশ ভালোভাবে জিতে নিলেও, সিরিজের শেষ ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করতে নেমেই সাউথ আফ্রিকান সিমারদের তোপের মুখে পরে  লজ্জ্বাজনক হার মেনে নিতে হয় ইংলিশদের।

প্রথম ওভারেই কাগিসো রাবাদার বলে আউট হন জেসন রয়। দ্বিতীয় এবং চতুর্থ ওভারে ওয়েইন পারনেল নেন আরো দুটি উইকেট। তবে ইনিংসের ৫ম ওভারে মূল ধ্বংসযজ্ঞ চালান রাবাদা । এই ওভারে ৩ টি উইকেট তুলে নেন তিনি। ফলে নিমিষেই ৩ উইকেটে ১৫ রানে থাকা ইংল্যান্ডের ২০ রানে পড়ে যায় ৬ উইকেট। সেখান থেকে জনি বেয়ারস্টো এবং ডেভিড উইলিস খাদের কিনারা থেকে টেনে তোলেন ইংল্যান্ডকে। সপ্তম উইকেটে তাদের ৬২ রানের পার্টনারশিপে প্রাথমিক ব্যাটিং ধস থেকে রক্ষা পায় ইংল্যান্ড। উইলিস ২৬ রান করে আউট হয়ে গেলেও রোল্যান্ড জোন্সকে নিয়ে এগোতে থাকেন বেয়ারস্টো।

অষ্টম উইকেটে তারা দুজনে মিলে যোগ করেন আরো ৫২ রান। তবে ১৩৪ রানের সময় আউট হয়ে যান বেয়ারস্টো। তিনি আউট হওয়ার পর ১৯ রানের মধ্যে বাকি ২ উইকেট তুলে নেন সাথ আফ্রিকান বোলাররা। ১৫৩ রানে অল আউট হয় ইংলিশরা। শেষ পর্যন্ত রোল্যান্ড জোন্স নট আউট থাকেন ৩৭ রান করে। মজার ব্যাপার উইলিস, বেয়ারস্টো এবং জোন্স ছাড়া আর কেউই পারেননি দুই অংকের স্কোর করতে। ইনিংসের চতুর্থ সর্বোচ্চ ১০ রান আসে এক্সট্রা থেকে। চারটি উইকেট নেন কাগিসো রাবাদা। তিনটি করে উইকেট লাভ করেন ওয়েইন পারনেল এবং কেশব মহারাজ।

১৫৪ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ভালো সূচনা এনে দেন দুই সাউথ আফ্রিকান ওপেনার হাশিম আমলা এবং কুইন্টন ডি কক। এই ম্যাচেই দ্রুততম সাত হাজার রান করার রেকর্ড করেন হাশিম আমলা। দলীয় ৯৫ রানের সময় ব্যাক্তিগত ৫৫ রানে আউট হয়ে যান আমলা। তারপর হঠাৎ করেই ১০১ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে বসে সাউথ আফ্রিকা। তবে টার্গেট কম হওয়ায় তা তাদের জয়ের পথে বাধা হতে পারেনি। দায়িত্বশীল ব্যাটিং এ দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে নিয়ে যান অধিনায়ক আব্রাহাম ডি ভিলিয়ার্স(২৭*)  এবং জা পল ডুমিনি(২৮*)। ফলে ৭ উইকেটের বড় জয় পায় সাথ আফ্রিকা। ২ টি উইকেট নেন জেক বল এবং একটি উইকেট লাভ করেন অভিষিক্ত রোল্যান্ড জোন্স।

এরকম এক বড় জয়ের পরও সিরিজ জিততে পারেনি সাউথ আফ্রিকা। সিরিজের প্রথম ম্যাচে তারা ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে পরাজয় বরণ করলেও দ্বিতীয় ম্যাচের হার একেবারেই মেনে নিতে পারেনি প্রোটিয়ারা । ফলে সিরিজ হার তখনই নিশ্চিত হয়ে যায়। আজ জয়ের মাধ্যমে শুধু হোয়াইটওয়াশ হওয়া থেকেই বাঁচলো সাউথ আফ্রিকা। ২-১ ব্যাবধানে সিরিজ জিতলো ইংল্যান্ড। ম্যান অফ দা ম্যাচ হয়ছেন কাগিসো রাবাদা এবং ম্যান অফ দা সিরিজ নির্বাচিত হয়েছেন ইংলিশ দলপতি ইয়ান মরগান।

 

বাংলা ইনিশিয়েটরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।