প্রচ্ছদ » খেলাধুলা » উইলিয়ামসনের সেঞ্চুরির পরেও ২৯১ রানে অলআউট নিউজিল্যান্ড

উইলিয়ামসনের সেঞ্চুরির পরেও ২৯১ রানে অলআউট নিউজিল্যান্ড

ইফতেখার তাহসিন মো আবির, বাংলা ইনিশিয়েটর

চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির দ্বিতীয় ম্যাচে আজ বিকাল ৩ টা ৩০ মিনিটে বার্মিংহামে মুখোমুখি হয় দুই প্রতিদ্বন্দ্বী অস্ট্রেলিয়া এবং নিউজিল্যান্ড। টস জিতে ব্যাট করতে নেমে বেশ ভালো শুরু করে নিউজিল্যান্ড। তবে দলীয় ৪০ রানে গাপটিল আউট হলে কিছুটা চাপে পড়ে যায় তারা। তবে দ্বিতীয় উইকেটে ৭৭ রানের জুটি গড়ে সেই চাপ সামাল দেন লুক রংকি এবং কেন উইলিয়ামসন। তবে মাঝপথেই আসে বৃষ্টির বাঁধা, আর তাই বৃষ্টির কারনে খেলা বন্ধ থাকে বেশ কিছুক্ষন। এবং এ কারনে খেলার নির্ধারিত সময় ৫০ ওভার থেকে কমিয়ে ৪৬ ওভারে নামিয়ে আনা হয়।

রংকি বেশ উড়ন্ত শুরু করলেও ব্যক্তিগত অর্ধশতকটিকে শতকে পরিনত করতে পারে নি তিনি, ৬৫ রান করে আউট হয়ে সাজঘরে ফিরেন এ কিউই ব্যাটসম্যান। তবে রংকির উইকেটে বিপদে পড়ে নি কিউইরা, তৃতীয় উইকেট জুটিতে রস টেইলরের সাথে আরো ৯৯ রান যোগ করেন অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। দারুণ ব্যাটিং করে অসাধারণ একটি সেঞ্চুরিও আদায় করে নেন কেন উইলিয়ামসন।

যেভাবে ব্যাটিং করছিল কিউইরা যেন তিনশত ছাড়াবে কিন্তু তা আর সম্ভব হয়নি ব্যাটিং ৪০ তম ওভারের প্রথম বল থেকেই ব্যাটিং এ ধস নামে নিউজিল্যান্ডের, চল্লিশত ওভারের প্রথম বলেই উইলিয়ামসন রান আউট হয়ে বিদায় নেবার পর থেকে নিউজিল্যান্ডের ইনিংসের স্থায়িত্ব ছিল মাত্র ৩৫ বল। যে ৩৫ বলে শুধুমাত্র ৩৭ রান যোগ করতেই বাকি ৬ টি উইকেট হারায় তারা। ফলে নির্ধারিত সময়ের এক ওভার আগেই ৪৫ ওভারে ২৯১ রানে অল আউট হয়ে যায় নিউজিল্যান্ড।

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে মূল ধ্বংসযজ্ঞ চালান জশ হ্যাজেলউড। ৯ ওভারে ৫২ রান দিয়ে ৬ উইকেট নেন তিনি। ২ টি উইকেট শিকার হ্যাস্টিংসের এবং একটি উইকেট লাভ করেন প্যাট কামিন্স। এভাবে অভাবনীয় বোলিং এর মাধ্যমে এই ব্যাটিং স্বর্গেও ৬ ওভারের মধ্যে নিউজিল্যান্ড এর ৭ উইকেট ফেলে দিয়ে লক্ষ্যমাত্রা হাতের নাগালেই রাখতে সক্ষম হয় অস্ট্রেলীয়া। যদি আবার অভাবনীয় কিছু না হয় তাহলে এই ম্যাচে সহজ জয়ই পাবে টিম অস্ট্রেলিয়া।

>
বাংলা ইনিশিয়েটরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।