প্রচ্ছদ » ক্যাম্পাস » ১৭৬ বছরের সুনাম কুড়িয়ে ১৭৭ বছরে ঢাকা কলেজ

১৭৬ বছরের সুনাম কুড়িয়ে ১৭৭ বছরে ঢাকা কলেজ

সুরাইয়া আক্তার জ্বীম | বাংলা ইনিশিয়েটর

১৮৪১ সালের ১৮ জুলাই উপমহাদেশের প্রথম আধুনিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয় ঢাকা কলেজ। ১৯৯২ সাল থেকে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে থাকা এই কলেজটি ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ খ্রিস্টাব্দে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত হয়। এটি বাংলাদেশের একটি শীর্ষস্থানীয় ও ঐতিহ্যবাহী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। এটি ঢাকা শহরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত। নিজেকে জানো- এই নীতিবাক্য বিশ্বাসী ঢাকা কলেজ বাংলাদেশের একটি শীর্ষস্থানীয় ও ঐতিহ্যবাহী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান।

নিউমার্কেট রোড,ধানমন্ডি, ঢাকা- ১২০৫ এ প্রায় ১৮.৫৭ একর (০.০৭৫ কি.মি.²) জমির উপর কলেজটি রয়েছে। ঢাকা কলেজ সংক্ষেপে ডিসি নামেও বেশ পরিচিত । ঢাকা কলেজ ১৮৩৫ সালের ১৫ জুলাই ‘ঢাকা গভর্নমেন্ট স্কুল’ নামে এটি যাত্রা শুরু করে। এর মাধ্যমে ঢাকাতেই বাংলার প্রথম সরকারি ইংরেজি স্কুল স্থাপিত হয়।

১৮৩৮-৩৯ শিক্ষাবর্ষে ঢাকা গভর্নমেন্ট স্কুলে ৮টি ক্লাস ছিলো এবং ছাত্র সংখ্যা ছিল ৩৪০। শিক্ষকদের মধ্যে ছিলেন ৭ জন ইংরেজ এবং ৪ জন বাঙালি। ১৮৪১ সালে স্কুলটি কলেজের মর্যাদায় উন্নীত হয় এবং এর নাম হয় ‘ঢাকা সেন্ট্রাল কলেজ’। ১৮৪১ সালের ২০ নভেম্বর কলকাতার বিশপ রেভারেন্ড ড্যানিয়েল সদরঘাটে কলেজের মূল ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন এবং ভবনটির নির্মাণ কাজ শেষ হয় ১৮৪৪ সালে। বিভিন্ন সময় কলেজটি বিভিন্ন জায়গায় স্থানান্তরিত হলেও ১৯৫৫ সালে কলেজটি বর্তমান জায়গায় স্থানান্তরিত হয়।

পূর্ববঙ্গের স্কুল-কলেজ পরিদর্শক তার ১৮৫৯-৬০ সালের প্রতিবেদনে উল্লেখ করেন যে, ঢাকা কলেজে যে কোর্স পড়ানো হয়, তা লন্ডন বিশ্ববিদ্যালয়ের বি.এ. পরীক্ষার কোর্সের সমতুল্য এবং কোর্স শেষে ছাত্রদের জ্ঞানের পাঁচটি শাখায় পরীক্ষা দিতে হয়। এ পাঁচটি বিষয় ছিল- ইংরজিসহ দুটি ভাষা, ইতিহাস এবং ভূগোল, অঙ্ক, প্রাকৃতিক বিজ্ঞান (পদার্থবিদ্যা) এবং মানসিক নৈতিক বিজ্ঞান।

১৮৭৫ সালে ঢাকা কলেজে বিজ্ঞান শাখা খোলা হয়, অর্থাৎ বিজ্ঞান বিষয়ক নতুন নতুন বিষয় পড়ানোর সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

যদিও ১৯১৪ সালের প্রথম বিশ্বযুদ্ধ শুরু হলে তার প্রভাব ঢাকা কলেজের উপরও এসে পড়ে কিন্তু সততা ও নিষ্ঠার দ্বারা শিক্ষকেরা সে ক্ষতি পুষিয়ে নিতে সক্ষম হয়েছিল। ১৯২১ সালের ৩১ মার্চ ঢাকা কলেজের মোট ছাত্র সংখ্যা ছিল ৭২৯। এদের মধ্যে ৫৫০ জন হিন্দু এবং
১৭৯ জন ছিল মুসলমান।

বর্তমানে ঢাকা কলেজ বাংলাদেশের অন্যতম প্রধান এবং শীর্ষস্থানীয় শিক্ষাঙ্গন। এর ছাত্রসংখ্যা ২০ হাজারের বেশি। এখানে এখন উচ্চ মাধ্যমিক পাঠ্যক্রমের সঙ্গে সঙ্গে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর পর্যায়ে ১৯টি বিষয়ে শিক্ষাদান কার্যক্রম চালু রয়েছে। ছাত্রদের জন্য ঢাকা কলেজে সাতটি ছাত্রাবাস আছে।

>
বাংলা ইনিশিয়েটরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।