প্রচ্ছদ » অনিয়ম » হিজড়াদের চাঁদাবাজিতে আতঙ্কিত নগরবাসী

হিজড়াদের চাঁদাবাজিতে আতঙ্কিত নগরবাসী

 অহিদা আক্তার ফাবিয়া | বাংলা ইনিশিয়েটর

গাজিপুরে হিজড়াদের চাঁদাবাজিতে আতঙ্কিত সেখানকার মানুষ। রঙ-বেরঙের শাড়ি পরে বিশেষ ভঙ্গিতে তালি দিয়ে তারা বিভিন্ন বাসা-বাড়িতে, অফিসে, রাস্তাঘাটে ও নগরীর অনেক এলাকায় তারা চাঁদা তুলছে। কেউ যদি টাকা দিতে অস্বীকার করে তাহলে তাকে অপমান-অপদস্থ করে টাকা আদায় করে। তাদের এমন আচারণে লজ্জায় মুখ খুলতে চায় না অনেক মানুষ। হিজড়াদের এমন কাজের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নেয়ার কারণে তাদের এ ধরণের কাজ দিন দিন বেড়েই চলছে।

রাজধানীর কলেজগেট, মিরের বাজার, শিবরাড়ি সহ অনেক জায়গায়ই চলছে হিজড়াদের রাজত্ব। কোনো বাসা-বাড়িতে শিশু আছে জানলে তারা দল-বল বেঁধে সেখানে গিয়ে বাচ্চা নাচানোর নাম করে ১০-২০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে।পরিবারের লোকজন এতো টাকা দিতে অস্বীকার করলে তারা বাচ্চা নিয়ে হাঁটা-হাঁটি শুরু করে বাচ্চা নিয়ে যাওয়ার ভয় দেখায়। ভয়ে টাকা দিতে এভাবে তারা পরিবারবর্গকে বাধ্য করছে। কয়েকজন হিজড়ার সাথে কথা বললে তারা বলেন, “আমাদেরকে কেউ কাজে নিতে চায় না বলে এ কাজ করতে বাধ্য হই”। তবে এলাকাবাসীদের জিজ্ঞেস করলে তারা বলেন, “হিজড়ারা কাজ করতে চায় না। চাঁদাবাজি করেই তারা এখন লাখ লাখ টাকার মালিক হয়েছে। চাঁদাবাজি তাদের পেশা হয়ে দাঁড়িয়েছে।”

হিজড়ারা এভাবে নগরবাসীদের আতঙ্কিত করলেও তাদের বিষয়ে কেউ অভিযোগ করতে চায় না। যার ফলে তারা প্রতিদিনই বেপরোয়া হয়ে উঠছে।

ছবিঃ ইন্টারনেট 

>
বাংলা ইনিশিয়েটরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।