প্রচ্ছদ » বিনোদন » ডুব নিয়ে যত রহস্য

ডুব নিয়ে যত রহস্য

প্রকাশ : ২৬ অক্টোবর ২০১৭৭:৪১:৪০ অপরাহ্ন

এইচ. এম. ফায়েকুজ্জামান ফাহাদ, বাংলা ইনিশিয়েটর

পরিচালক মোস্তফা সরয়ার ফারুকী নির্মিত “ডুব (নো বেড অব রোজেজ)” নিয়ে অনেক আগে থেকেই শোনা যাচ্ছে হরেক রকমের মতবাদ, উঁকি দিচ্ছে নানান রহস্য। কখনো হুমায়ূন পত্নী মেহের আফরোজ শাওন বলছেন ডুব একটি বায়োপিক সিনেমা। তিনি এই বিষয় নিয়ে প্রেসের সাথে নানান আলোচনায়ও বসেন, নানান টক শো-তেও দেখা যায় তাকে।

তবে পরিচালক মোস্তফা সরয়ার ফারুকী কখনো কোনোভাবেই বলেন নি, এটি একটি বায়োপিক।  দর্শকেরা এরই কারণে ঘোরের মাঝে আটক হয়ে ছিলেন বেশ কিছুদিন। আসলে কী আছে এই সিনেমায়? কেন এতো রহস্য তৈরি হচ্ছে এটি নিয়ে? এইসব প্রশ্নের কারণেই ডুব সিনেমা নিয়ে কোনোরকম প্রচারণা  না করা সত্বেও প্রচারণা হয়ে গিয়েছিলো প্রচুর। যা সিনেমাটির জন্য অবশ্য ভালো দিকই বয়ে এনেছে। দর্শক সমাজ ডুব এর দিকে আকৃষ্ট হয়েছে, পেয়েছে জনপ্রিয়তা।

সেই রহস্যের মাঝে ইতি টানতে একদিন হাজির হয় ডুব এর ট্রেইলার। ট্রেইলার যেন রহস্য সমাধান না করে আরো বাড়িয়েই দিয়েছিলো। কারণ, এতেও কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের জীবন কাহিনীর সাথে মিল পাওয়া যায়।

এই প্রসঙ্গে মোস্তফা সরয়ার ফারুকী এক সাক্ষাৎকারে জানান, “বায়োপিক বললে দর্শক আমার থেকে সত্যটাই আশা করতেন। একজন ফিকশান মেকার সবসময় গল্প নেন তার চারপাশ থেকেই। এর আগেও আমি আমার চারপাশ থেকে গল্প নিয়েই চলচ্চিত্র নির্মাণ করেছি। আমি যদি দর্শককে সত্য দেখাতে চাই কোন সত্য দেখাবো? হুমায়ূন আহমেদের দ্বিতীয় পত্নী’র বক্তব্য অনুযায়ি সত্য নাকি প্রথম স্ত্রীর সত্য? যা প্রথম পত্নীর কাছে সত্য তা দ্বিতীয় জনের কাছে সত্য নাও হতে পারে। তাই আমি বায়োপিক বানাতে চাই নি। আমি আমার মত করেই নির্মাণ করেছি একটি গল্প। যেখানে হয়তো কিছুটা মিল থাকতেও পারে।”

তবে রহস্য যেন কাঁটছে না তবুও। দর্শক সমাজ যেন এখনো দ্বীধার ঘোরেই আছে। সবার মনে  চলছে ঠিক কতটুকু সত্য-মিথ্যা বা গল্প জুড়ে তৈরি করা হয়েছে এই “ডুব”! সকল রহস্যের সমাধান করতেই আগামীকাল, ২৭ তারিখ মহা আয়োজনে বাংলাদেশব্যাপী মুক্তি পাচ্ছে “ডুব (নো বেড অব রোজেজ)”।

বাংলা ইনিশিয়েটরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।