প্রচ্ছদ » খেলাধুলা » ঘরের মাঠে টানা দুই ম্যাচ জিতল সিলেট সিক্সারস!

ঘরের মাঠে টানা দুই ম্যাচ জিতল সিলেট সিক্সারস!

প্রকাশ : ৫ নভেম্বর ২০১৭৭:২৭:৩৯ অপরাহ্ন

সাব্বির রায়হান অপি | বাংলা ইনিশিয়েটর

কুমিল্লার আইকন খেলোয়ার তামিম এই ম্যাচে ছিলেন না ইনজুরির কারনে। তাই অধিনায়কের দায়িত্ব সামলেছেন আফগান অলরাউন্ডার মোহাম্মদ নাবি। টসে হেরে ব্যাটিং করতে নামে দুই ভিক্টোরিয়ানস ওপেনার ইমরুল ও লিটন। গড়েছেন ৩৬ রানের ওপেনিং জুটি। বেশ স্বচ্ছন্দেই যখন ব্যাটিং করছিলেন দুই ওপেনার তখনই নাসির-তাইজুলের যৌথ প্রযোজনা। ইমরুল কায়েসকে অসাধারন এক বলে বোল্ড করলেন নাসির। পরের ওভারেই তাইজুল তুলে নেন লিটনের উইকেট। বাটলার বেশিক্ষন থাকতে না পারলেও প্রতিরোধ গড়েন কাপালি-স্যামিউলস জুটি। কিন্তু কাপালিকেও ২৯ রানে প্যাভিলিয়নে পাঠান সান্তকি। এরপর নাবি থাকতে না পারলেও স্যামিউলসের সাথে ব্রাভো ১৪৫ রানে নিয়ে যান দলীয় সংগ্রহ। শেষ সময়ে স্যামিউলসকে ফিরিয়েছেন প্লাঙ্কেট। ক্যারিবিয়ান এই ব্যাটসম্যানের ৪৭ বলে ৬০ রানের ইনিংসে ২টি বাউন্ডারি এবং ৩টি ওভার বাউন্ডারির মার ছিল।

সিলেটের হয়ে সান্তকি ও তাইজুল নিয়েছেন ২টি এবং নাসির ও প্লাঙ্কেট নিয়েছেন একটি করে উইকেট। জবাবে ব্যাট করতে নেমে আরেকটি অসাধারন উদ্বোধনি জুটি গড়েছেন থারাঙ্গা ও ফ্লেচার। নবম ওভারে ব্রাভোর বলে রাশিদকে ক্যাচ দিয়ে ৩৬ রানে ফেরেন ফ্লেচার। এবারের আসরে প্রথমবার ব্যাটিংয়ের সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারে নি সাব্বির। নাবির বলে এলবিডব্লিউ হন ৩ রান করে। ১৫তম ওভারের প্রথম বলেই ভূল বোধাবুঝিতে উইকেট হারান থারাঙ্গা। রান আউট হবার আগে ৪০ বলে ৫১ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন শ্রীলংকার এই ব্যাটসম্যান। ১৮ রানে নাসির ফেরেন রাশিদের বলে স্টাম্প হয়ে। এরপর আর তেমন বড় কোন ইনিংস খেলতে পারেননি কেউ। তবে ততক্ষনে ম্যাচ পুরোপুরি ভাবে সিক্সার্সের হাতের মুঠোয়। হোইটলি, শুভাগত, প্লাঙ্কেট এবং নুরুলের ছোট ছোট অবদানে ৪ উইকেট হাতে রেখেই জয়ের বন্দরে পৌছে যায় সিলেট সিক্সার্স। ব্রাভো ২টি এবং রাশিদ ও নাবি নিয়েছেন একটি করে উইকেট।

বাংলা ইনিশিয়েটরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।