প্রচ্ছদ » খেলাধুলা » হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে জয় পেয়ে শীর্ষে খুলনা টাইটানস!

হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে জয় পেয়ে শীর্ষে খুলনা টাইটানস!

প্রকাশ : ২৪ নভেম্বর ২০১৭৯:১২:০২ অপরাহ্ন

সাব্বির রায়হান অপি | বাংলা ইনিশিয়েটর

টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন রংপুর রাইডার্সের অধিনায়ক মাসরাফি বিন মর্তুজা। ব্যাটিংয়ে নেমেই আক্রমনাত্নক ব্যাটিং শুরু করেছিলেন রাইলি রুশো। তবে সে রংপুরের উপর চেপে বসার আগেই তার বিদায় ঘন্টা বাজিয়ে দেন সোহাগ গাজি। দ্বিতীয় ওভারে দ্বিতীয় বলে আক্রমনাত্নক শট খেলতে গিয়ে ক্লিন বোল্ড হন এই পোর্টিয়া ব্যাটসম্যান। পরের ওভারে আফিফ হাসানকে ফিরিয়ে দারুন কিছুর আভাস দেন রুবেল হোসেন।

এরপরেই মাহমুদউল্লাহ ও শান্তর সতর্ক জুটি। এবার আক্রমন করলেন অধিনায়ক নিজেই। সপ্তম ওভারে বোলিং করতে এসে তৃতীয় বলেই শান্তকে রুবেলের ক্যাচ বানান ম্যাশ। ২০ বলে ২০ রানের ইনিংস খেলে শান্তর বিদায়ের পর মাঠে নামেন নিকোলাস পূরাণ। শুরু থেকেই আরো বেশি সতর্ক ছিলেন পূরাণ। কিন্তু শেষ রক্ষা হল না। ১৩তম ওভারে তাকে উইকেটের পেছনে ক্যাচ বানিয়ে নিজের উপস্থিতি জানান দেন মালিঙ্গা। অন্য প্রান্তে ভরসাযোগ্য ব্যাটিং করে যাচ্ছিলেন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ। তবে এবার তিনিও বিদায় নিলেন। ৬ চার ও ২ ছক্কায় ৩৬ বলে ৫৯ রান করে রুবেলের বলে নাহিদুলের কাছে ধরা দেন সাইলেন্ট কিলার। ২ বল পরেই বিদায় নেন আগের ম্যাচের নায়ক আরিফুল হক। পরের সবাই আসা যাওয়ার মাঝেই ছিলেন। তবে ব্রেথওয়াইট ও যোফার আর্চারের ছোট ছোট অবদানে ৮ উইকেটে ১৫৮ রানের সংগ্রহ পায় টাইটানরা। রুবেল ৩টি, মালিঙ্গা ২টি এবং মাসরাফি, সোহাগ ও পেরেরা পেয়েছেন ১টি করে উইকেট।

জবাবে ব্যাট করতে নেম শুরুতেই ধাক্কা খায় মাসরাফির রংপুর। গেইল-ম্যাককালাম জুটি আরো একবার ব্যার্থ হয়। দ্বিতীয় ওভারে ম্যাককালামকে আরিফুলের ক্যাচ বানান আফিফ হোসেন। পরের ওভারেই গেইলের উইকেট নেন আবু যায়েদ। সতর্ক ব্যাটসম্যান মিথুন হন রান আউটের শিকার। দুই ওভার পরেই ফজলে রাব্বিকে ফিরিয়ে দ্বিতীয় উইকেট পান আফিফ হোসেন। একদিকে রান রেট বেড়েই যাচ্ছে অন্যদিকে উইকেট হারাচ্ছে রংপুর। এমন চাপের মুখে দারুন ইনিংস খেলেন বোপারা ও নাহিদুল ইসলাম। দুজনের অর্ধশতক যখন জয়ের স্বপ্ন দেখাচ্ছিলো। তখনই শেষ ওভারে বোলিং ও ফিল্ডিং যাদু দেখান জুনায়েদ খান। প্রথমে নাহিদুলকে নিজেই রানআউট করেন। এরপর শেষ বলে তুলে নেন বোপারার উইকেটও। ফলে ৯ রানের জয় পায় খুলনা টাইটানস। বোপারা ৪৪ বলে ৫৯ এবং নাহিদুল খেলেছেন ৪৩ বলে ৫৮ রানের ইনিংস।

৮ ম্যাচে ১১ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার শীর্ষে খুলনা টাইটানস। আর ৭ ম্যাচে ৬ পয়েন্ট নিয়ে পঞ্চম দল রংপুর রাইডার্স।

বাংলা ইনিশিয়েটরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।