প্রচ্ছদ » খেলাধুলা » রাজার রাজকীয় ইনিংসে জয় পেল চিটাগাং ভাইকিংস!

রাজার রাজকীয় ইনিংসে জয় পেল চিটাগাং ভাইকিংস!

প্রকাশ : ২৪ নভেম্বর ২০১৭১০:৪৫:৩৪ অপরাহ্ন

সাব্বির রায়হান অপি | বাংলা ইনিশিয়েটর

ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতেই জোড়া ধাক্কা খাওয়ার পর কেউ হয়তো ভাবতেই পারে নি টুর্নামেন্টে এ পর্যন্ত সবচেয়ে বাজে অবস্থায় থাকা দলটি ২১১ রানের পাহাড় গড়বে। তবে সিকান্দার রাজার অবিশ্বাস্য ইনিংসের সাথে লুক রঞ্চি ও স্টিয়ান ভানের ইনিংসে ভর করে অসম্ভব কাজটাই করে দেখিয়েছে চিটাগং ভাইকিংস। দ্বিতীয় ওভারেই আইকন সৌমকে স্টাম্প আউট করেন অধিনায়ক নাসির। দুই ওভার পরেই আরেক বাংলাদেশি এনামুলকে ফেরান টিম ব্রেসনান। এরপর রঞ্চি ও স্টিয়ান ভানের দুর্দান্ত জুটি ঝড় তুলে রানের পাহাড় গড়ার কাজ শুরু করে দেয়। অষ্টম ওভারে ঝড় থামান আবুল হাসান। ব্রেসনানের তালুবন্ধি হবার আগে ৬ চার ও ১ ছয়ে ২৫ বলে ৪১ রানের ইনিংস খেলেন কিইউ ব্যাটসম্যান।

এরপরই শুরু হয় আসল ঝড়। রঞ্চি-স্টিয়ানকে ছাড়িয়ে যায় সিকান্দার রাজার ঝড়। অথচ এমন ঝড় দেখা হত না যদি ১০ম ওভারে নাসির ক্যাচটা ধরে ফেলতেন। ব্যক্তিগত ১ রানে কামরুল ইসলাম রাব্বির বলে জীবন পান জিম্বাবুয়ের এই ব্যাটসম্যান। এরপর আর তাকে কেউ থামাতে পারেনি। তবে ৫ রানের জন্য সেঞ্চুরি না পাওয়ার আফসোসটা রয়েই যাবে পাকিস্তানে জন্ম নেয়া এই ব্যাটসম্যানের। ৯ চার ও ৬ ছক্কায় ৪৫ বলে ৯৫ রান করে সেই কামরুল ইসলাম রাব্বির বলেই এন্ড্রে ফ্লেচারকে ক্যাচ দিয়ে ইনিংসের সমাপ্তি টানেন রাজা। তার আগেই অবশ্য বিদায় নিয়েছেন স্টিয়ান ভান। ৪ চার ও ২ ছক্কায় ২৬ বলে ৪০ করেছেন এই দক্ষিন আফ্রিকান। কামরুল ২টি এবং নাসির, ব্রেসনান ও আবুল পেয়েছেন একটি করে উইকেট।

রানের পাহাড় জয়ের লক্ষে প্রথম ধাক্কার পরে শুরুটা ভালই করেছিল সিক্সার্সরা। পঞ্চম ওভারে মাত্র ১০ রান করে সানজামুলের বলে সৌমকে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন গুনাথিলাকা। এরপর এন্ড্রে ফ্লেচার ও বাবর আজমের অসাধারন ইনিংস যেন অসম্ভবকে সম্ভব করার স্বপ্ন দেখিয়েছিল। তবে ভাগ্যটা আজ চিটাগাংয়ের হয়েই কথা বলেছে বারবার। ১৩তম ওভারে তাসকিনের বলে রাজাকে ক্যাচ দিয়ে সাঁজ ঘরে ফেরেন এন্ড্রে ফ্লেচার। তার আগে ৪৬ বলে ৭১ রানের অসাধারন ইনিংস খেলেছেন এই ক্যারিবিয়ান। ছিল ৮ চার ও ৪ ছক্কা। পরের ওভারেই স্টিয়ান ভানের বলে ফেরেন বাবর আজম। ২ চার ও ১ ছক্কায় ৩২ বলে ৪১ রানের ইনিংস খেলেছেন এই পাকিস্তানি। এরপর নুরুল হাসান ছাড়া আর কেউ দুই অঙ্কে জেতে পারেননি। ১৬ বলে ২৮ রানের ইনিংসটা শুধু ব্যাবধানটাই কমাতে পেরেছে। চিটাগাং ভাইকিংস পেয়েছে ৪০ রানের অসাধারন ইনিংস। তাসকিন ৩টি এবং সৌম ও স্টিয়ান ভান ২টি করে উইকেট পেয়েছে।

বাংলা ইনিশিয়েটরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।