প্রচ্ছদ » খেলাধুলা » তামিমের রেকর্ডের দিনে বিপদে টাইগাররা!

তামিমের রেকর্ডের দিনে বিপদে টাইগাররা!

প্রকাশ : ২৩ জানুয়ারী ২০১৮৩:৫৯:৫৫ অপরাহ্ন

সাব্বির রায়হান অপি | বাংলা ইনিশিয়েটর

এর আগে ত্রিদেশীয় সিরিজে দুটি ম্যাচ খেলেছিল বাংলাদেশ। দুটিতেই অসাধারন জয়। শেষবার জিম্বাবুয়ের সাথে যে একাদশ নিয়ে খেলেছিল, অাজও ঠিক একই একাদশ নিয়ে মাঠে নামে টিম বাংলাদেশ। শেষবার পরে ব্যাটিং করলেও টসে জিতে এবার আগে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন মাসরাফি। উইকেট চিনতে হয়তো একটু ভূল করে ফেলেছেন বাংলাদেশের সবচেয়ে সফল এই অধিনায়ক। স্কোর কার্ডে ২১৬ রানের পাশে ৯ উইকেট দেখলেই তা বোঝা যায়।

গেল দুই ম্যাচেই ভাল শুরু করেও ভাল কিছু করতে পারেনি এনামুল হক বিজয়। কারন হিসাবে বলেছিল টিম ম্যানেজমেন্টই নাকি তাকে শট খেলার স্বাধীনতা দিয়েছে। স্বাধীনতাটা কাজে লাগাতে আজও ব্যার্থ বিজয়। ৭ বল খেলে ১ রানেই বিদায় নেন বিজয়। এরপর আগের ম্যাচগুলোর মতই সাকিব-তামিমের অভিজ্ঞ জুটির ব্যাটিংয়ে এগিয়ে চলছিল টাইগার ইনিংস। উইকেট যে ব্যাটিংয়ের জন্য কতটা কঠিন তা বোঝা যাচ্ছিল সাকিবের ব্যাটিং দেখেই।আক্রমনাত্নক হতে পছন্দ করা সাকিব, খেলছিলেন একের পর এক ডট বল। তবে অর্ধশতক করেই খোলশ ছেঁড়ে বের হতে চেয়েছিলেন সাকিব। রাজাকে এগিয়ে মারতে গিয়ে স্টাম্প হন তিনি। ৮০ বলে ৫১ রানের ইনিংসের মৃত্যু ঘটে।

মুশফিকও বেশি বড় করতে পারেনি তার ইনিংসটাকে। ১৮ রান করে ক্রেমারের বলে মুজারবানিকে ক্যাচ দেন তিনি। এরপরই আসা-যাওয়ার মিছিল। আরেক প্রান্তে দাড়িয়ে থাকা তামিম আবারও সেঞ্চুরির স্বপ্ন দেখিয়ে ব্যার্থ হলেন। ১০৫ বলে ৭৬ রান করেন তিনি। ৬টা বাউন্ডারি মেরেছেন এই ইনিংসে। রেকর্ডও ভেঙ্গেছেন বেশ কয়েকটা। জয়সুরিয়ার রেকর্ড ভেঙ্গে একটি ভেন্যুতে সবচেয়ে বেশি রানের মালিক এখন তামিম। মিরপুরের শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামের সর্বোচ্চ রানের মালিকও তিনি। প্রথম বাংলাদেশি হয়ে একদিনের ক্রিকেটে ৬ হাজার রানের ক্লাবেও নাম লিখিয়েছেন তামিম। এত রেকর্ডের পরেও সেঞ্চুরির আক্ষেপ নিয়েই বিদায় নেন তামিম। ৩৯তম ওভারে ক্রেমারের বলে স্টাম্প হন তিনি।

এর আগেই ফিরেছেন মাহমুদউল্লাহ। সাব্বির, নাসির, মাসরাফি সকলেই দলের হীল ধরতে ব্যার্থ। শেষ সময়ে সানজামুল, মুস্তাফিজ ও রুবেলের ছোট অবদানে ২১৬ রানের সংগ্রহ পায় টাইগাররা। জিম্বাবুয়ের হয়ে ৪ উইকেট পান ক্রেমার এবং ৩টি উইকেট পেয়েছেন জার্ভিস। জিতলে ফাইনালে যাবার সুযোগ পাবে জিম্বাবুয়ে। সাকিব-মুস্তাফিজদের সামনে ২১৭ রান ছোট লক্ষটাও অকটু বড় হয়ে যায়।

বাংলা ইনিশিয়েটরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।