প্রচ্ছদ » আমাদের সাহিত্য » “আড়াল হলেই দূরত্ব বাড়ে, নাকি দূরত্বে গেলেই আড়ালে যায় মন?”

“আড়াল হলেই দূরত্ব বাড়ে, নাকি দূরত্বে গেলেই আড়ালে যায় মন?”

প্রকাশ : ৯ মার্চ ২০১৮২:১০:০০ অপরাহ্ন

খাতুনে জান্নাত | বাংলা ইনিশিয়েটর

বইঃ উল্টোজলে কাঁটছি সাঁতার
লেখকঃ কুশল ভৌমিক
প্রকাশনীঃ বেহুলা বাংলা
প্রথম প্রকাশঃ ফেব্রুয়ারি ২০১৮
ধরণঃ কবিতা
মূল্যঃ ১৫০ টাকা (বইয়ের ওপর মুদ্রিত)
পৃষ্ঠাঃ ৪৮

“উল্টোজলে কাঁটছি সাঁতার” – নামটিই বেশ আকর্ষণীয়। স্রোতের বিপরীতে সাঁতার কাটাটা যেমন সহজ নয়, ঠিক তেমনই বাংলাদেশে কবিতা লিখলেই ‘কবি’ পরিচয় পাওয়া কিন্তু সহজ নয়! কিন্তু বইটির তরুণ লেখকের কবিতাগুলো পড়লেই বোঝা যায়, তিনি হারিয়ে যেতে আসেন নি। বরং বাংলা সাহিত্যে স্থায়ী আসন গড়তেই এসেছেন।

বইটিতে মোট ৩৯ টি কবিতা রয়েছে। প্রতিটি কবিতার রয়েছে ভিন্ন ভিন্ন বিষয়। কিছু কবিতা আছে বিশেষ কাউকে নিয়ে, বিশেষ কাউকে উৎসর্গ করে। বইটির প্রথম কবিতার নাম ‘অভিশাপ’। শেষ কবিতার নাম ‘মানুষ মূলত একা’।

কবিতাগুলোর ভাষা, লেখার ভঙ্গি অত্যন্ত চমৎকার। বর্তমানের তরুণদের কবিতাবিমুখীতা অনেকটাই কাটানো যাবে যদি এ ধরণের কবিতা বেশি বেশি লেখা হয়। বইটির ‘অভিশাপ’ নামের কবিতার কিছু লাইন,
“একদিন আফসোসের দীর্ঘশ্বাস দীর্ঘ থেকে দীর্ঘতর হয়ে
রূপ নেমে অশান্ত সাইক্লোনে
অথচ বুকপকেটে রাখা ছিল টলমলে নদী
অবহেলায় যাকে তুমি করেছ পাহাড়।
পাহাড় থেকে নদী হয়, আমার বেলায় নদী থেকে পাহাড়!”

লাইনগুলো পড়লে যেন বারবার পড়তে ইচ্ছে করে! চমৎকারভাবে নিজের মনের ভাব উপযুক্ত শব্দ দিয়ে প্রতি ক্ষেত্রে প্রকাশ করে গিয়েছেন কবি। বইটির আরেকটি কবিতা ‘দূরত্ব’ – এর শেষ দুটি লাইন,
“আড়াল হলেই দূরত্ব বাড়ে, নাকি
দূরত্ব বাড়লেই আড়ালে যায় মন?”

লাইনগুলো পড়লে প্রতিটি পাঠকেরই মনে হবে এ যেন তারই প্রশ্ন! শুধুমাত্র শব্দের পর শব্দ সাজিয়ে করতে পারছিলেন না। এখানেই কবির স্বার্থকতা!

কবিতার এই দুঃসময়ে তরুণ এই কবিকে স্বাগতম! কিশোর-তরুণদের মধ্যে কবিতাকে ছড়িয়ে দিতে তার মতো কবিরই প্রয়োজন এই সময়ে।

বাংলা ইনিশিয়েটরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।