প্রচ্ছদ » খেলাধুলা » প্লে-অফ খেলার আশা বাচিঁয়ে রাখলো রাজস্থান রয়েলস!

প্লে-অফ খেলার আশা বাচিঁয়ে রাখলো রাজস্থান রয়েলস!

প্রকাশ : ৯ মে ২০১৮১:০০:৪৭ পূর্বাহ্ন

সাব্বির রায়হান অপি | বাংলা ইনিশিয়েটর

ম্যাচটি শুরু হওয়ার আগে টেবিলের তলানিতে ছিল রাজস্থান রয়েলস। এই ম্যাচটি হারলেই হয়তো টুর্নামেন্ট থেকে বেড় হয়ে যেত দলটি। এমন অবস্থায় পরেরে সবগুলো ম্যাচ জিততে হতো রাজস্থানকে। তাই করে দেখালেন বাটলাররা। ঘরের মাঠে পাঞ্জাবের বিপক্ষে দুর্দান্ত জয় তুলে নিয়েছেন তারা।

টসেও জিতেছিলেন রাজস্থানের অধিনায়ক আজিঙ্কা রাহানে। ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়ে মাঠে নামেন জস বাটলারকে নিয়ে। সিদ্ধান্তটাতে চমক ছিল, কিন্তু সেটাই কাজে লেগেছে। বাটলার ঝড়েই তো জয় পেয়েছে রাজস্থান রয়েলস। শুরু থেকেই ঝড় তুলতে থাকেন বাটলার। কিন্তু অন্যপ্রান্তে থাকা রাহানেকে স্বাচ্ছন্দে দেখা যাচ্ছিলো না। সেই সুযোগটাই কাজে লাগালেন এন্ড্রু তায়। তার নাকাল বলে ফ্লিক করতে গিয়ে কাভারে থাকে আক্সদিপ নাথকে ক্যাচ দিয়ে ৯ রানে ফেরেন আজিঙ্কা। উপরে ব্যাটিং করার সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারেননি ক্রিসনাপ্পা গৌতম। সপ্তম ওভারের স্টয়নিসের তৃতীয় বলে লং অনে থাকা মানোজ তিওয়ারিকে সহজ ক্যাচ দেন তিনি।

টুর্নামেন্টে দারুন পারফর্মেন্স দেখানো স্যামসন ভালো শুরু করেও বড় ইনিংস খেলতে ব্যার্থ ছিলেন। ১৮ বলে ২২ রান করে মুজিবের গুগলি বলে তিনিও লং অনে মানোজ তিওয়ারিকে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন ব্যাটসম্যান। অন্যপ্রান্তে থাকা বাটলার তার স্বভাবসূলভ আক্রমনাত্মক ব্যাটিং করে যাচ্ছিলোন। ১৬তম ওভারে জীবন পেয়ে ১৭তম ওভারেই ফেরেন এই ইংলিশ ব্যাটসম্যান। ৯ চার ও ১ ছক্কায় ৫৮ বলে ৮২ রান করে মুজিবের বলে এগিয়ে মারতে গিয়ে স্টাম্প হন। এরপরের ওভারেই করুন নাইয়ারের দুর্দান্ত ফিল্ডিংয়ে রান আউট হন ১১ রান করা স্টুয়ার্ট বিন্নি। শেষ ওভারে তিনটি উইকেট তুলে নিয়ে পাঞ্জাবকে ১৫৮ রানে আটকে রাখেন এন্ডু তায়। একটি উইকেট ছিল ১১ বলে ১৪ করা বেন স্টোকসের। বাকি দুইটি আর্চার ও উনাদকাটের। ৪ ওভারে ৩৪ রানে ৪ উইকেট নেন এন্ড্রু তায়।

১৫৯ রানের লক্ষ জয়ে ব্যাট করতে নেমে পাঞ্জাবের শুরুটাও যেন রাজস্থানের মতই হয়। তৃতীয় ওভারেই গৌতমের বলে স্টাম্প হয়ে ফেরেন “ইউনিভার্স বস” ক্রিস গেইল। একি ওভারে উপরে ব্যাটিং করতে এসে শূন্য রানে ফিরেন আশ্বিন। গৌতমের গুড লেংথ বলে বোল্ড হন পাঞ্জাব অধিনায়ক। এক প্রান্ত আগলে রেখে সঙ্গিদের বিদায় দেখছিলেন লোকেশ রাহুল। পরের ওভারেই করুন নাইয়ারকে ফেরান জোফরা আর্চার। সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারেননি আক্সদিপ নাথ। ইস সোদির বলে লং অফে সহজ ক্যাচ দেন মাত্র ৯ রান করে। এরপর পাঞ্জাবের ইনিংস ছিল আসা-যাওয়ার মিছিল। ১২তম ওভারে স্টোকসের বল ৭ রান করা মানোজ তিওয়ারির ব্যাটে এজ লেগে এক্সাট্রা কাভারে থাকা আজিঙ্কা রাহানের তালুবন্ধি হয়।

স্টুয়ার্ট বিন্নির দুর্দান্ত ফিল্ডিংয়ে রান আউট হন ৯ রান করা আক্সার পাটেল। নিয়মিত উইকেট পরায় রান রেট নাগালের এতটাই বাইরে চলে যায় যে ১১ চার ও ২ ছয়ে ৭০ বলে ৯৫ করা লোকেশ রাহুলের পক্ষেও তা স্পর্শ করা সম্ভব হয়নি। ১৫ রানের সহজ জয় পায় রাজস্থান। দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে ম্যাচ সেরা হন জস বাটলার। টেবিলের ষষ্ঠ স্থানে রাজস্থান রয়েলস। আর কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব আছে তৃতীয় স্থানে।

আগামিকাল বাংলাদেশ সময় ৮টা ৩০ মিনিটে কলকাতার ইডেন গার্ডেনে মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের বিপক্ষে মাঠে নামবে কলকাতা নাইট রাইডার্স।

বাংলা ইনিশিয়েটরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।