শিরোনাম
প্রচ্ছদ » খেলাধুলা » বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে স্বাগতিক রাশিয়ার জয়!

বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে স্বাগতিক রাশিয়ার জয়!

প্রকাশ : ১৫ জুন ২০১৮১২:১৬:৫১ পূর্বাহ্ন

খাতুনে জান্নাত

২০১৮ এর বিশ্বকাপে উদ্বোধনী ম্যাচ শুরু হয়েছে স্বাগতিক দল রাশিয়া আর সৌদি আরবকে নিয়ে। র্যাংকিংয়ে সর্বনিন্মে থাকা দলটিকে নিয়ে যদিও খুব বেশি উচ্চাশা ছিল না ফুটবল প্রেমীদের, তবুও, সৌদি আরবের ত্রুটির সুযোগ নিয়ে বেশ দেখিয়েছে স্বাগতিক রাশিয়া! ফলাফল ৫-০ গোলে রাশিয়ার জয়!

যদিও দল দুইটিকে নিয়ে কারোই খুব বেশি প্রত্যাশা ছিল না, তারপরেও মাত্র ১২ মিনিটেই প্রথম গোলটি করেন ইউরি গাজিনস্কি।

কর্নার থেকে ডি-বক্সে বল এসেছিল আলেক্সান্দর গোলোভিনের কাছে। তাঁর মাথা ছুঁয়ে বল ছোট বক্সের একটু বাইরে থাকা গাজিনস্কির কাছে। এই মিডফিল্ডারের পাহারায় থাকা সৌদি ডিফেন্ডার লাফাতে গিয়েও পেরে উঠলেন না। মাটিতে পড়ে যেতে যেতে দেখলেন, কীভাবে গাজিনস্কির হেড গোলরক্ষক আবদুল্লাহ আল-মাইয়ুফের গ্লাভসকে ‘এত কাছে তবু কত দূরে’ বলে জালে চলে যাচ্ছে! ২৮ বছর বয়সে এসে প্রথম আন্তর্জাতিক গোল পাওয়ার জন্য এর চেয়ে ভালো উপলক্ষ হয়তো নিজেও লিখতে পারতেন না গাজিনস্কি। এই একটি গোলই যথেষ্ট ছিল স্বাগতিকদের জয়ের পক্ষে। কিন্তু তারা একেই থেমে থাকেন নি!

দুজন সৌদি ডিফেন্ডারের সঙ্গে যখন তিনজন রাশিয়ান ফরোয়ার্ডের টান টান লড়াই চলছে, ঠিক সেই মুহূর্তে হঠাৎ হ্যামস্ট্রিংয়ে টান পড়ল আলান জাগোয়েভের। বিশ্বকাপের প্রথম গোলের সঙ্গে প্রথম চোটের সঙ্গেও নাম লিখল রাশিয়া। মাঠে নামলেন দেনিস চেরিশেভ। তাতেই ইতিহাস হলো। বিশ্বকাপের ইতিহাসে উদ্বোধনী ম্যাচে বদলি নেমে গোল করতে পারেননি কেউ। রিয়াল মাদ্রিদের একাডেমির এই সাবেক খেলোয়াড় সে ইতিহাস গড়লেন ৪৩ মিনিটে। উন্মাদনা ছড়িয়ে দিলেন পুরো মাঠে! প্রথমার্ধ শেষ হলো স্বাগতিকদের পক্ষ নিয়েই ২-০ ব্যবধানে।

ইতিহাস কেউ করতে পারেনি, সেটা হয়ে গেল ২৮ মিনিটের মধ্যে দুবার। ৭০ মিনিটে বদলি নামা আরতিয়ম জিউবা দলকে পরের মিনিটেই গোল করে ফেললেন। ৯২ মিনিটে প্রতিপক্ষের রক্ষণের আরেকটি ভুলে বল পেয়ে গেলেন চেরিশেভ। বাঁ পায়ের দারুণ এক শটে ব্যবধান বাড়ল (৪-০)। কিন্তু এতেও ক্ষুধা মিটল না স্বাগতিকের। ১ মিনিট পরেই বক্সের বাইরে পাওয়া ফ্রি কিক থেকে দুর্দান্ত গোল ম্যাচের সেরা খেলোয়াড়ের। বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে স্বাগতিক দলের গোলদাতাদের ছোট তালিকায় নাম উঠল আলেক্সান্দর গোলোভিনেরও। ভিআইপি বক্সে মোহাম্মদ বিন সালমানকে আরও একটা খোঁচা দেওয়ার সুযোগ পেয়ে গেলেন ভ্লাদিমির পুতিন। মাঝখানে ফিফা সভাপতি ইনফান্তিনোকে রেখে দুই দলের দুই হর্তাকর্তা বসেছিলেন খেলা দেখতে।

আগামীকাল সৌদি আরবে ইদ হলেও সৌদি খেলোয়াড়রা মোটেও ইদের আনন্দ পালন করতে পারছেন না। বরং ইদ ছুঁয়েছে রাশিয়াকে। যদিও ম্যাচটি তেমনভাবে তৃপ্ত করতে পারে নি কাউকেই, তবুও স্বাগতিকরা ভালো দেখিয়েছে। এতে ম্যাড়ম্যাড়ে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের দুঃখ ঘুচেছে অনেকটাই!

উদ্বোধনী ম্যাচ তো শেষ। এবার পালা পরের ম্যাচের। দেখা যাক কী হয় মিশর আর উরুগুয়ের ম্যাচে, কে টিকে থাকে এই নাটকীয় মঞ্চে!

বাংলা ইনিশিয়েটরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।