প্রচ্ছদ » খেলাধুলা » ১৬ বছর পর ফেরার আক্ষেপই যেন মিটলো আজ!

১৬ বছর পর ফেরার আক্ষেপই যেন মিটলো আজ!

প্রকাশ : ২০ জুন ২০১৮১:৩২:৩৩ পূর্বাহ্ন

খাতুনে জান্নাত | বাংলা ইনিশিয়েটর

১৬ বছর আগে শেষবার বিশ্বকাপ মঞ্চে দেখা মিলেছিলো দলটির। আজ ১৬ বছর পর আবার। এক যুগ আরও চার পর প্রত্যাবর্তনকে স্বরণীয় করে রাখলো তারা। অবশ্য ভাগ্যও বেশ সহায় ছিল বলতেই হয়। তা না হলে এমন অপ্রত্যাশিত গোল কি হয়? বলছি সেনেগালের কথা। আজ সেনেগাল বনাম পোল্যান্ডের খেলা বেশ জমজমাট হয়ে উঠেছিলো। ২-১ ব্যবধানে জিত হয় সেনেগালের।

ম্যাচের ৩৭ মিনিটে গোল দেয় সেনেগাল। ডি-বক্সের বাইরে থেকে শট নিয়েছিলেন সেনেগালের এক খেলোয়াড়। ভয়চেক সেজনি সেদিকেই ঝাঁপ দিয়েছিলেন। কিন্তু সে শট থিয়াগো চিওনেকের পায়ে লেগে দিক বদলাল। ৬০ মিনিটে এম’বায়ে নিয়াং ব্যবধান দ্বিগুণ করেছেন পোল্যান্ড রক্ষণেরই ভুলে। ৮৬ মিনিটে জেগোশ ক্রিকোভিয়াক ব্যবধান কমিয়েছেন, কিন্তু ওতেও শেষরক্ষা হয়নি। হতাশার ভার বইতেই হলো পোল্যান্ডকে।

হার দিয়ে বিশ্বকাপ শুরুর জন্য পোল্যান্ডে কোনো অজুহাত দিতে পারবে না। প্রথম আত্মঘাতী গোলের পক্ষে তবু যুক্তি দেওয়া যায়, দ্বিতীয় গোলের তো কোনো অর্থ হয় না। সেনেগালের অর্ধে বল পেয়ে পেছনে ব্যাক পাস দিয়েছিলেন ক্রিকোভিয়াক। বলটা পেছনে পাঠানোর মুহূর্তেও মাঠের বাইরে ছিলেন এম’বায়ে নিয়াং। হঠাৎ করে ওভাবে বল আসতে দেখে এবং আস পাশে পোল্যান্ডের কোনো ডিফেন্ডার না দেখে ছুট লাগালেন। সেজনি এগিয়ে এসে চার্জ করতে গিয়েও পারলেন না নিয়াংকে আটকাতে।

নিয়াং বলটা জালে পাঠিয়ে তবেই দৌড় থামালেন।
দুই গোল খাওয়া পোল্যান্ড এরপর আক্রমণের পর আক্রমণ করেছে। কিন্তু গোল পেতে পেতে বড্ড দেরি হয়ে গেছে তাদের। ৮৬ মিনিটে এক ফ্রিকিক থেকে পাওয়া ক্রসে মাথা ছুঁইয়ে আশা জাগিয়েছিলেন ক্রিকোভিয়াক। কিন্তু সেনেগালের বিশ্বকাপের শুভ সূচনায় কোনো দাগ ফেলতে পারেনি পোল্যান্ড।

৩ বিশ্বকাপ পরে ফিরে আসার প্রথম দিনটিকে বেশ স্বরণীয় করে রাখলো সেনেগাল। খেলাটি সবাই বেশ উপভোগও করেছে। দেখা যাক কী হয় পরের ম্যাচে!

বাংলা ইনিশিয়েটরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।