প্রচ্ছদ » খেলাধুলা » ২৫ বছরের সেরা ওয়ানডে একাদশ ঘোষণা করেছে ইএসপিএন ক্রিকইনফো!

২৫ বছরের সেরা ওয়ানডে একাদশ ঘোষণা করেছে ইএসপিএন ক্রিকইনফো!

প্রকাশ : ২০ জুন ২০১৮২:০৫:২৬ অপরাহ্ন

সাব্বির রায়হান অপি | বাংলা ইনিশিয়েটর

ক্রিকেট ইতিহাসের শেষ ২৫ বছরে ক্রিকেট বিশ্ব দেখেছে অসংখ্য তারকা। ব্যাট-বল হাতে প্রিয় তারকার জ্বলে উঠলেই হাসি ফুঁটতো ভক্তদের। তবে এই ক্রিকেট উন্মাদনার মাঝে একটা তর্ক সবসময়ই থেকে যায় ভক্তদের মাঝে। সবার চোখেই যে তার প্রিয় খেলোয়ারই যেন সবার সেরা। টেষ্টের পর এবার ওয়ানডের সেরা একাদশ ঘোষণা করেছে ইএসপিএন ক্রিকইনফো।

নিজ দিনে ব্যাট-বল হাতে যে তারকারা একাই দলকে জিতিয়ে দিতো সেই মহাতারকাদের নিয়ে যদি একটি দল তৈরী করা যেত তাহলে কেমন হতো? এতো সেরাদের মাঝে কাদেরই বা জায়গা হতো সেরা একাদশে? ৫ সদস্যের জুরি বোর্ড বসিয়ে এই প্রশ্নেরই উত্তর খোঁজার চেষ্টা করেছে ক্রিকেট বিষয়ক ওয়েব সাইট ইএসপিএন ক্রিকইনফো। ৫ জনের তৈরী করা আলাদা একাদশের সমন্বিত ফলাফল নিজেদের ওয়েব সাইটে প্রকাশ করেছে তারা।

২৫ বছরে ইএসপিএন ক্রিকইনফো ওয়ানডে একাদশঃ

১. অ্যাডাম গিলক্রিস্ট (উইকেট-রক্ষক)
২. শচীন টেন্ডুলকার
৩. ব্রাইন লারা
৪. বিরাট কোহলি
৫. এবি ডি ভিলিয়ার্স
৬. জ্যাক কালিস
৭. মাহেন্দ্র সিং ধোনি (অধিনায়ক)
৮. ওয়াসিম আকরাম
৯. শেন ওয়ার্ন
১০. গ্লেন ম্যাকগ্রা
১১. মুত্তিয়া মুরালিধরন

৫ সদস্যের জুরি বোর্ডঃ

১. ইয়ান চ্যাপ্পেল, সাবেক অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক
২. সঞ্চয় মাঞ্জেরেকর, ধারাভাষ্যকার ও সাবেক ভারতীয় ক্রিকেটার
৩. জন রাইট, সাবেক নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক ও সাবেক ভারতীয় কোচ
৪. ডেভ হোয়াটমোর, সাবেক অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার ও সাবেক শ্রীলংকান কোচ
৫. মার্ক নিকোলাস, ক্রিয়া সাংবাদিক

জুরি বোর্ড ছাড়াও পাঠকদের ভোটের মাধ্যমেও আলাদা একটি একাদশ তৈরী করেছে ওয়েব সাইটটি। দুই একাদশের মধ্যে পার্থেক্য ‘নাম্বার তিন’-এ। জুরি বোর্ডের একাদশে স্থানটা দ্যা গ্রেট ব্রায়েন লারার হলেও ভক্তদের ভোটে স্থানটি পেয়েছেন সাবেক অজি অধিনায়ক রিকি পন্টিং।

পাঠকদের ভোটে গত ২৫ বছরের সেরা ওয়ানডে একাদশঃ

১. অ্যাডাম গিলক্রিস্ট (উইকেট-রক্ষক)
২. শচীন টেন্ডুলকার
৩. রিকি পন্টিং
৪. বিরাট কোহলি
৫. এবি ডি ভিলিয়ার্স
৬. জ্যাক কালিস
৭. মাহেন্দ্র সিং ধোনি
৮. ওয়াসিম আকরাম
৯. শেন ওয়ার্ন
১০. মুত্তিয়া মুরালিধরন
১১. গ্লেন ম্যাকগ্রা

বাংলা ইনিশিয়েটরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।