প্রচ্ছদ » খেলাধুলা » ইরানকে হারিয়ে আশা বাঁচিয়ে রাখলো স্পেন!

ইরানকে হারিয়ে আশা বাঁচিয়ে রাখলো স্পেন!

প্রকাশ : ২১ জুন ২০১৮৩:০৬:৪০ পূর্বাহ্ন

খাতুনে জান্নাত | বাংলা ইনিশিয়েটর

২০১০ সালের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন স্পেন আজ নেমেছিলো ইরানের বিপক্ষে। স্বভাবতই ফেবারিট হিসেবে ছিল স্প্যানিশরা। ২০১০ সালের নায়ক কস্তা আবার সুপারম্যানের ভূমিকা পালন করেন। তার একমাত্র গোলেই ভাগ্যের দুয়ার খোলে স্প্যানিশ খেলোয়াড়দের। আর লাল জার্সির ইরানিদের জন্য নিয়ে আসে পরায়জয়ের গ্লানি!

ম্যাচ ড্র করতে পারলে ইরানের পয়েন্ট হতো ৪, স্পেনের ২। ইরানের তখন দ্বিতীয় পর্বে যাওয়ার আশা অনেকটাই উজ্জ্বল হতো। বিপরীত দশা হতো স্পেনের। স্প্যানিশদের বিপক্ষে আক্রমণাত্মক খেলে পারা যাবে না। আর ড্র করলেই যেখানে সমীকরণটা সহজ হয়ে যায়, ইরান স্বাভাবিকভাবেই বেছে নিয়েছে রক্ষণাত্মক কৌশল। তাতে কাজও হচ্ছিল। প্রথমার্ধে ভালোভাবে আটকে রাখা গেল স্পেনকে। স্পেন যত আক্রমণই রচনা করুক, সেগুলো কোনোটিই ইরানের রক্ষণভাগ ভাঙতে পারেনি।

৫৪ মিনিটে ভাঙল ইরানের প্রাচীর। স্পেনের ক্রান্তিকালে আন্দ্রেস ইনিয়েস্তার ছোঁয়া না থাকলে যেন হয় না! আজও ২০১০ বিশ্বকাপ ফাইনালের নায়ককে লাগল। ইনিয়েস্তার পাসে কস্তার ফিনিশিং। অবশ্য স্প্যানিশ ফরোয়ার্ড ভাগ্যের ছোঁয়াও পেলেন। ১-০ গোলে এগিয়ে গেল স্পেন। এই অগ্রগামিতা তারা ধরে রাখল ম্যাচের শেষ পর্যন্ত।

স্পেনের আক্রমণ ঠেকাতে ব্যস্ত ইরান দারুণ এক সুযোগ পেল ৪৯ মিনিটে। ইরানি ফরোয়ার্ড করিম আনসারিফার্দের জোরাল শটটা হলো ‘সাইড নেটিং’। ৬২ মিনিটে স্পেনের জালে বল পাঠিয়ে ইরান যখন আনন্দে মত্ত, রেফারি তখন শরণ নিয়েছেন ভিএআরের। অফসাইড! ভিএআরে দেখা গেল সাইদ এজতোলাহি অফসাইড! পুরো আনন্দ মুহূর্তেই মাটি! গোলটা খাওয়ার পরই যেন একটু জেগে উঠল তারা। স্পেনের রক্ষণ কাঁপিয়ে তুলল বেশ কবার। ৭৫ ও ৮৮ মিনিটে দুবার সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারেনি কুইরোজের দল।

৪ পয়েন্ট নিয়ে কস্তার স্পেন আর রোনালদোর পর্তুগাল এবার গ্রুপের শীর্ষে। দেখা যাক আজ সন্ধ্যা ৬ টায় সামারায় ডেনমার্ক বনাম অস্ট্রেলিয়ার খেলায় কী হয়!

গ্রুপ ‘বি’-এর পয়েন্ট টেবিল :

বাংলা ইনিশিয়েটরে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।